মিথ্যাচারদের কাছে দেশ ও জনগন নিরাপদ নয়-নৌ পরিবহন মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান-এমপি বলেছেন, বিএনপির মিথ্যা বলার রোগে পেয়েছে। তাদের দলের মহাসচিব মির্জা ফকরুল ইসলাম বলছেন রংপুরের নির্বাচন সুষ্ঠ হয়েছে, আর যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রেজবি বলেছেন সুষ্ঠ হয় নি। তাদের নিজ দলের মধ্যেই চলছে মিথ্যাচার। যারা মিথ্যার রোগে আক্রান্ত তাদের কাছে দেশ ও দেশের মানুষ কখনই নিরাপদ নয়। এরা নিজেদের জন্য আন্দোলন করে, দেশের মানুষের জন্য নয়। গতকাল বুধবার সকালে নগরীর মেরিন শিক্ষানবিশদের শিক্ষা সমাপনি কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান-এমপি এসব কথা বলেন।
এর আগে মন্ত্রী বরিশাল নগরীর বান্দরোডস্থ বিআইডব্লিউটিএ’র ডেক ও ইঞ্জিন কর্মী প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত মেরিন শিক্ষানবিশদের শিক্ষা সমাপনি কুচকাওয়াজ ও সনদ বিতরণ করেন। ডেক ও ইঞ্জিন কর্মী প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও শিপ পার্সোনেল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট’র অধ্যক্ষ মোঃ আবদুল মতিন সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, যাদের অবহেলায় আজ বহু নদীপথ হারিয়ে গেছে তাদের বিচার এই দেশের মানুষ করবে। বাংলাদেশের নদীপথ বাচাতে একমাত্র বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনা সরকারই উদ্যোগ নিয়ে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ইতো মধ্যে ৩হাজার৩শ’ কিলোমিটার নদীপথ উদ্ধার করা হয়েছে। নদী পথে দক্ষ জাহাজ চালক সৃস্টির লক্ষ্যে এই সরকারই প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করেছে।
তিনি বলেন, বিএনপি তাদের ব্যর্থতার গ্লানি স্বীকার করে নিয়েছে। গেল মুক্তিযোদ্ধা সন্মেলনে ওই দলের চেয়ারপারসন ব্যর্থতার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন। যারা জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু শ্লোগান দেয় না তারা এ দেশের মুক্তিযোদ্ধা হতে পারে না। ঢাকায় তথাকথিত জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সমাবেশে জাতীর পিতাকে স্বীকার করা হয়নি। বিএনপি সবসময়ই বেগম জিয়া আর তারেক জিয়াকে বাঁচানোর জন্য আন্দোলন করে। কিন্তু দেশের মানুষের জন্য তাদের কোন আন্দোলন নেই।
মন্ত্রী বলেন, বিশ্বের বহু দেশের সংসদ বহাল রেখে নির্বাচন পরিচালনা করছে। তেমনি বাংলাদেশও সংসদ বহাল রেখে নির্বাচন হবে। বিএনপি নির্বাচনে এলেও বিগত দিনে যেভাবে গুরুত্বপূণ ব্যক্তি আর সাধারণ মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে সেই দেশের মানুষের কাছে তারা কি জবাব দিবে। তাই যুদ্ধাপরাধীদের যেভাবে বিচার হচ্ছে ঠিক তেমনি ভাবে ওই সব হত্যাকারীদের বিচার প্র্রধানমন্ত্রীর জননেন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল-৫ আসনের সংসদ সদস্য জেবুন্নেছা আফরোজ ও বিআইডব্লিউটিএ বিএন চেয়ারম্যান কমডোর এম. মোজাম্মেল হক (জি) এনইডিপি, এনডিসি, পিএসসি, বরিশাল জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান বরিশাল সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু, মেট্রোপলিটন উপ-পুলিশ কমিশনার আব্দুর রউফ খান ও জেলা লঞ্চ মালিক সমিতির সভাপতি আজিজুল হক আক্কাস।