মালায়শিয়া পাচার হওয়া কুয়াকাটার ৪ যুবকের ১জন হাড্ডিসার হয়ে দেশে ফিরেছে

কুয়াকাটা প্রতিবেদক ॥ দালালদের খপ্পড়ে পরে নৌ পথে ট্রলার যোগে পাচার হওয়া কুয়াকাটার ৪ যুবকের মধ্যে আলমগীর ৬ মাস পরে দেশে ফিরেছে। হাড্ডিসার শরীর নিয়ে বুধবার শাহজালাল বিমান বন্দরে নেমে তিন ঘন্টা অজ্ঞান হয়ে পড়লে লোকজন উদ্ধার করে ঢাকার গাজীপুর এলাকায় রেখে চিকিৎসা চালাচ্ছে।
এদিকে আলমগীরের দেশে ফেরার সংবাদ পেয়ে বাকি তিন পরিবারে চলছে আহাজারি। অপরদিকে আলমগীর চলে আসায় বাকি তিন বন্ধু অসুস্থ্য হয়ে পড়েছে মালায়শিয়ার জেল খানায়।
আলগীরের পিতা আঃ খালেক জানান, আমার পুতেরে প্লেনে পাডাইছে এই সংবাদ দালাল মস্তফা আমারে দেয়। দেশে র্ফিরা তিন ঘন্টা ইয়ারপোটে বেহুস আল্লে। শইল্লে কিছু নাই খালি হাড্ডি। এহন ঢাকায় রাইক্যা চিকিৎসা করছি।
দেশে ফেরা আল আমিন জানায়, তিন মাস থাইল্যান্ডের জঙ্গলে থাইক্কা পলাইয়া পুলিশের হাতে ধরা পড়ার পর আরো তিন মাস প্লান্টিক সিক্স ক্যাম্প জেলখানায় চারজন একত্রে আল্লাম। ২০ ঘন্টা পর পর একটু খাবার দেতে। কি যে কষ্ট বুঝানো যায়না। বাবায় টিকিডের টাহা পাডানোর পর আমি আসার সময় ওরা তিনজন কানতে কানতে অজ্ঞান অইয়া যায়। সবাই খুব অসুস্থ। জ্বর ওডে আর নামে।
এদিকে আলমগীর দেশের ফেরার সংবাদ পেয়ে নতুন করে আহাজারি শুরু হয়েছে কুয়াকাটায় ওই তিন পরিবারের মধ্যে। গতকাল স্থানীয়দের উদ্যোগে তাদের ফিরিয়ে আনতে টিকিটের টাকার জন্য মানুষের সহযোগীতার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।