মাদক ব্যবসায়ী ও সেবীদের ভালো হওয়ার সুযোগ দেয়া হবে -ডিআইজি শফিকুল ইসলাম

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ সমাজের চোখ আপনারা। আপনাদের মাধ্যমেই আমরা দেখি। সকালে উঠে পুরো বিশ্বের খবরগুলো আপনাদের মাধ্যমে পেয়ে থাকি। এটি পুলিশের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। গতকাল সোমবার বিকেল ৪টায় পুলিশ লাইন্স ইন সার্ভিস সেন্টারে এক মতবিনিময় সভায় সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন সদ্য যোগদানকারী বরিশাল রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম (বিপিএম-সেবা)।
সাংবাদিকদের নিয়ে এই মতবিনিময় সভায় তিনি আরও বলেন, ঐতিহ্যবাহী এই বরিশাল বিভাগে দায়িত্ব পালনে এসেছেন। দায়িত্ব পালনের বিগত সকল স্থানের ন্যায় এখানেও মাদক নিধনকে প্রধান মিশন বানিয়ে কাজ করবেন তিনি। মাদক ব্যবসায়ী ও সেবীদের ভালো হওয়ার সুযোগ দেয়া হবে এবং যদি তারা ভালো হতে চায় তবে সরকারিভাবে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হবে বলেন ডিআইজি মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম।
বরিশালের ৬টি জেলাই মাদকের উপর কাজ করা হবে। শহরকে ভাগ করে কর্মকর্তাদের পৃথক পৃথকভাবে দায়িত্ব দেয়া হবে। একই সাথে ত্বরান্বিত করা হবে কমিউনিটি পুলিশিংয়ের কাজ। সাধারণ জনগণের অভিযোগ পুলিশের কাছে জানানোর জন্য জেলা-উপজেলা শহরগুলোতে দেয়া হবে অভিযোগ বাক্স। প্রতিদিন সকালে সাধারণের কাছ থেকে প্রাপ্ত অভিযোগগুলো সরাসরি দেখবেন সংশ্লিষ্ট জেলা পুলিশ সুপার এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। জনগণকে নিয়ে পুলিশিং করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন ডিআইজি।
আলোচনায় তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, সংবাদের মাধ্যমেই মানুষ আমাদের কাজ জেনে উপকৃত হবেন। তাই সংবাদকর্মীদের প্রতি ভালো খবরগুলো যথাযথভাবে প্রচার করার অনুরোধ জানান তিনি। একই সাথে পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করার আহ্বান জানান। তার দরজা সাংবাদিকদের জন্য সবসময় খোলা। মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে সাধারণদের সেবার দেয়ার কথা জানান সদ্য যোগদান করা ডিআইজি।
মাদককে প্রধান সমস্যা চিহ্নিত করে তা নিয়ন্ত্রণে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে তিনি বলেন, যদি কোন পুলিশের বিরুদ্ধে মাদক সংশ্লিষ্ট বিষয়ে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হয় তার বিরুদ্ধেও সর্বোচ্চ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এসময় সংবাদকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন তিনি এবং সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে আলোচনা করেন।
আলোচনার এক পর্যায়ে সকল জেলা-উপজেলার পুলিশ কর্তাদের প্রতি কোন সংবাদকর্মীর বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলা গ্রহণের আগে পুলিশ হেডকোয়ার্টারে যথাযথ মাধ্যমে যোগাযোগ করার কথা জানান ডিআইজি মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম।
মতবিনিময় সভায় ৬ জেলার পুলিশ সুপার সহ বরিশাল রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি আকরাম হোসেন উপস্থিত ছিলেন। সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সাংবাদিক অ্যাড. এসএম ইকবাল, মেট্রোপলিটন প্রেস ক্লাবের সভাপতি অ্যাড. আবুল কালাম আজাদ, ইনকিলাবের বিশেষ প্রতিবেদক নাছিম উল আলম, এটিএন বাংলার বরিশাল ব্যুরোর হুমায়ুন কবীর, ইন্ডিপেন্ডেন্ট বরিশাল ব্যুরো প্রধান মুরাদ আহমেদ, পরিবর্তন প্রকাশক ও সম্পাদক কাজী মিরাজ মাহমুদ, সমকাল প্রতিনিধি পুলক চ্যাটার্জী, সময় টেলিভিশন বরিশাল ব্যুরো প্রধান ফিরদাউস সোহাগ, নিউজ টোয়িন্ট ফোরের বরিশাল ব্যুরো প্রধান রাহাত খান, মাছরাঙা টেলিভিশনের বরিশাল ব্যুরো রিপোর্টার গিয়াস উদ্দিন সুমন, বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নজরুল বিশ্বাস, প্রথম আলো’র সাইফুর রহমান মিরন, চ্যানেল আই’র শাহীনা আজমীন সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।