ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনের সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত

পরিবর্তন ডেস্ক ॥ জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করার জন্য পিরোজপুর, উজিরপুর ও নলছিটিতে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ওই সকল সংবাদ সম্মেলন করেছে সংশ্লিষ্ট সিভিল সার্জন। আমাদের পিরোজপুর প্রতিবেদক জানান, সকালে পিরোজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ ফকরুল আলম তার কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিং এর মাধ্যমে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, জেলায় এ বছর ১ লক্ষ ২৬ হাজার ৬৪ জন শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে এবং তা বাস্তবায়নের জন্য পিরোজপুর স্বাস্থ্য বিভাগ পুরোপুরি প্রস্তুত। তিনি জানান, জেলার ৭ উপজেলার ৫২টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভার ১৬২ টি ওয়ার্ডে ১ হাজার ৩ শত ৭৬ টি স্থায়ী, অতিরিক্ত ও ভ্রাম্যমান কেন্দ্রের মাধ্যমে ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানো হবে। জেলায় ৬-১১ মাস বয়সী শিশুর সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়েছে ১৩ হাজার ৭ শত ৬৩ জন এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী শিশুর সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়েছে ১ লক্ষ ১২ হাজার ৩ শত ১ জন। আগামী ২৫ এপ্রিল অনুষ্ঠিত ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন সফলভাবে পরিচালনার জন্য জেলায় ৪ হাজার ১ শত ২৮ জন কর্মীকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এছাড়া ২ শত ২৫ জন সুপারভাইজার বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করে সুষ্ঠুভাবে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো তদারকি করবেন।
উজিরপুর প্রতিবেদক জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্স এর উদ্যোগে ২৫ এপ্রিল জাতীয় ভিটামিন ‘এ’প¬াস ক্য’াম্পেইন পালন উপলক্ষ্যে উপজেলা অরিয়েন্টেশন ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ এ,কে,এম সামসুদ্দিনের সভাপতিত্ত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় উপ-পরিচালক ডাঃ শেখ আব্দুর করিম, বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় সহকারী পরিচালক প্রশাসন ডাঃ বাসুদেব কুমার দাস, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি শাহ্ মোঃ রফিকুল ইসলাম, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি এস,এম জামাল হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অপূর্ব কুমার বাইন (রন্টু), মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সীমা রানী শীল, সভা পরিচালনা করেন উপজেলা স্বাস্থ্য পরিসংখ্যানবিদ মোঃ সিরাজুল ইসলামের সঞ্চালনায় অন্যানদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওটরা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ খালেক রাঢ়ী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ আহম্মেদুর রহমান, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ওলী আহাদ প্রমূখ। সভায় আগামী ২৫ এপ্রিল শনিবার ৬ মাস থেকে ৫ বছর পর্যন্ত সকল শিশুদের ভিটামিন‘এ’ প¬াস ক্যাপসুল নিকটতম কেন্দ্রে গিয়ে খাওয়ানর জন্য আাহব্বান জানান।
নলছিটি প্রতিবেদক জানান, পৌরসভার হলরুমে অনুষ্ঠিত হয়। প্রশিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেন নলছিটি পৌরসভার সেনিটারী ইন্সপেক্টর এস এম হায়দার ও পৌরসভার ইপি আই সুপারভাইজার মোঃ নাছির খান। মোট ৭২ জন স্বেচ্ছসেবী এ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশ নেন। আগামী ২৫ এপ্রিল পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের ২৬টি কেন্দ্রে ৬-১ মাস বয়সী সকল শিশুকে ১টি নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল ও ১২-৫৯ মাস বয়সী অর্থাৎ ১-৫ বছর বয়স পর্যন্ত শিশুকে ১টি করে লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। ইপি আই সুপারভাইজার মোঃ নাছির খান এ প্রতিবেদকে জানান এ প্রোগ্রামে অর্থ বরাদ্ধ না থাকায় ব্যক্তিগত ভাবে ৭২ জন স্বেচ্ছাসেবীকে জন প্রতি ১০ টাকার নাস্তা প্রদান করা হয়েছে। বরাদ্ধ আসলে স্বেচ্ছাসেবীদের সম্মানী ভাতা দেয়া হবে।