ভারপ্রাপ্ত মেয়র হচ্ছেন কেএম শহীদুল্লাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হতে যাচ্ছেন প্যানেল মেয়র আলহাজ্জ কেএম শহীদুল্লাহ। মেয়র মোঃ আহসান হাবিব কামাল এর অবর্তমানে আগামী ২৬ নভেম্বর থেকে ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব বুঝে নিবেন তিনি। এ দায়িত্ব পালন করবেন আগামী ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত।
বরিশাল সিটি কর্পোরেশন সূত্রে জানা গেছে, আগামী ২৬ নভেম্বর সরকারের আমন্ত্রনে সিটি নেট ইন্টারন্যাশনাল সেমিনারে অংশ নিতে ভিয়েতনাম যাবেন সিটি মেয়র আহসান হাবিব কামাল। আগামী ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত তিনি সেখানে অবস্থান করবেন।
এদিকে মেয়র আহসান হাবিব কামাল এর অবর্তমানে সকল উন্নয়ন ও দাপ্তরিক কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখতে নিয়ম অনুযায়ী ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব দিয়েছেন ১নং প্যানেল মেয়র আলহাজ্জ কেএম শহীদুল্লাহকে। ইতোমধ্যে মেয়র কামাল লিখিত ভাবে বিষয়টি স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয় এবং কেএম শহীদুল্লাহকে অবহিত করেছেন। আগামী ২৬ নভেম্বর থেকে এ আদেশ কার্যকর হবে।
এদিকে আলহাজ্জ কেএম শহীদুল্লাহ ৮ দিনের জন্য বরিশাল সিটির ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। এসময় নগরীর চলমান সকল উন্নয়ন কার্যক্রমের তদারকি করবেন তিনি।
বিসিসি সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালে সিটি নির্বাচনে বিপুল ভোটে প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীকে পরাজিত করেন নগরীর ১২ নম্বর ওয়ার্ডের একাধিকবার নির্বাচিত কাউন্সিলর কেএম শহীদুল্লাহ। এর পরে বর্তমান সিটি পরিষদ নির্বাচনের পরে কাউন্সিলরদের ভোটে প্যানেল মেয়র-১ নির্বাচিত হন কেএম শহীদুল্লাহ। এ নির্বাচনে ২৬ ভোট পেয়ে তার প্রতিদ্বন্দি প্রার্থী আলতাফ মাহমুদ সিকদারকে পরাজিত করেন।
এছাড়া এ্যাড. শওকত হোসেন হিরন মেয়র থাকা কালে বিসিসি’র নির্বাচিত প্যানেল মেয়র-২ ছিলেন কেএম শহীদুল্লাহ। এসময় নিয়ম অনুযায়ী মেয়র হওয়ার সুযোগ পেলেও তখনকার সময় সেই সুযোগ থেকে বঞ্চিত করা হয় তাকে। পর পর দুই বার কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়া ছাড়াও এর পূর্বে একবার কমিশনার নির্বাচিত হয়েছিলেন। সেই থেকেই টানা প্রায় ১২ বছর ১২ নম্বর ওয়ার্ডে সফলতার সাথে জনপ্রতিনিধিত্ব করে আসছেন কেএম শহিদুল্লাহ। তার জনপ্রিয়তার কাছে প্রতি নির্বাচনেই পরাস্ত হয়ে আসছেন প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীরা। কেএম শহীদুল্লাহ ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ায় তাকে এবং সিটি মেয়র আহসান হাবিব কামালকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ১২ নং ওয়ার্ডবাসী।