বিসিসি’র বাজেট ঘোষনা ২৬ জুলাই

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের ২০১৫-১৬ অর্থ বছরের বাজেট প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এখন শুধু ঘোষনার অপেক্ষায়। আগামী ২৬ জুলাই আনুষ্ঠানিকভাবে নগর ভবনের সভা কক্ষে সিটি মেয়র আহসান হাবিব কামাল চলতি অর্থ বছরের বাজেট ঘোষনা করবেন। গতকাল বৃহস্পতিবার নগর ভবনের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত এক জরুরী সভার মাধ্যমে বাজেট ঘোষনার দিন ক্ষন নির্ধারন করেন মেয়র আহসান হাবিব কামাল।
এদিকে আসছে বাজেটে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের নানা মুখি উন্নয়ন এবং সৌন্দর্য বর্ধনের কাজে বরাদ্দ বাড়ছে। বিশেষ করে নগরীর পানি নিস্কাসনে পর্যাপ্ত ড্রেনেজ ব্যবস্থা, খাল-পূনরুদ্ধার এবং নগরীর বিবির পুকুর ও প্রেবেশ দ্বারে সিটি গেট নির্মানের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন বাজেট কাম হিসাব রক্ষন শাখার সংশ্লিষ্টরা।
বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ এবং নগরীর ১২ নং ওয়ার্ডের একাধিকবার নির্বাচিত কাউন্সিলর আলহাজ্ব কে.এম শহীদুল্লাহ জানান, গতবারের থেকে এবারের অর্থ বছরের বাজেটের আকার বৃদ্ধিপাবে। তবে কোন কোন খাতে বিশেষ বরাদ্দ রাখা হয়েছে সে সম্পর্কে কিছু না জানালেও তিনি বলেন, বাজেটে পূর্বের গৃহিত প্রকল্পগুলোর প্রতি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। এর পাশাপাশি নতুন কিছু প্রকল্পও সংযুক্ত হচ্ছে বাজেটে। এর পাশাপাশি নগরীর তিনটি প্রবেশ দ্বারে তিনটি সিটি টোল নির্মান, বিবির পুকুরের উন্নয়ন, ডেনেজ ব্যবস্থা, রাস্তা ঘাট উন্নয়ন ও বর্ধিত করন, আলোকসজ্জার ও খাল খনন এবং পূনরুদ্ধারের বিষয়গুলোতে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। তবে এবছর নতুন করে কর বৃদ্ধি করা হবে কিনা সে বিষয়ে তথ্য দিতে পারেননি তিনি।
উল্লেখিত বিষয়ের প্রতি সত্যতার ইঙ্গিত দিয়ে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রনজিৎ কুমার বলেন, আমরা চেষ্টা করছি জনবান্ধব একটি বাজেট প্রস্তুতির। ইতোমধ্যে তা প্রায় শেষের পর্যায়ে।
তিনি বলেন, নগরবাসীর যাতে কোন ভোগান্তি না এবং এবং তাদের সুযোগ সুবিধার কথা বিবেচনা করেই বাজেট তৈরীর কাজ চলছে। আগামী ২৬ জুলাই আনুষ্ঠানিকভাবে বাজেট ঘোষনা হবে বলে সিটি মেয়র দিন ক্ষন নির্ধারন করেছেন।
প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরো জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার নগর ভবনের সভা কক্ষে মেয়র আহসান হাবিব কামাল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এই সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়।
এসময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন- বিসিসি’র প্যানেল মেয়র আলহাজ্ব কে.এম শহীদুল্লাহ, মোশারেফ আলী খান বাদশা, রশিফ তাসলিমা কামাল পলি, সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র আলতাফ মামুদ সিকদার, গাজী আক্তারুজ্জামান হিরু, সৈয়দ জাকির হোসেন জালাল, এসএম জাকির হোসেন, বাজেট কাম হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা মশিউর রহমান সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের সাধারন এবং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
বিসিসি’র বাজেট