বিএম কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বিএম কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের হামলা, সংঘর্ষ ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের ৪ জন আহত হয়েছে বলে দাবী করা হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে কলেজ ক্যাম্পাসের বাকসু ভবনের সামনে এই ঘটনা ঘটে। প্রেম সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে আহতদের বরিশাল সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। আহতরা হলো বাংলা বিভাগের আবির, অর্থনীতি বিভাগের রাজু, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র রক্তিম ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের মনোজ আহত হন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিএম কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের এক ছাত্রীর সাথে বাংলা বিভাগের ছাত্র ও ছাত্রলীগ কর্মী আবিরের প্রেম চলে আসছিলো। ঐ ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দিতে গিয়ে বিষয়টি জানতে পারে অর্থনীতি বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র এবং ছাত্রলীগ কর্মি রাজু। এরই জের ধরে গতকাল শনিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কলেজ ক্যান্টিনে আবিরকে হুমকি-ধামকি এবং ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে বারন করে রাজু।
এর কিছুক্ষন পর আবিরের নেতৃত্বে তার সহপাঠি ছাত্রলীগ কর্মীদের নিয়ে রাজুকে ক্যান্টিন সহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজা খোজি করে। দুপুর দেড়াটার দিকে বাকসু ভবনের সামনে রাজুকে একা পেয়ে আবির ও তার সহযোগিরা বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। খবর পেয়ে রাজুর ছাত্রলীগ কর্মী বন্ধুরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পাল্টা হামলা চালালে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এক পর্যায় তাদের মাঝে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের চার জন আহত হয় বলে উভয় পক্ষ থেকে দাবী করা হয়েছে।
কোতয়ালী মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) শাখাওয়াত হোসেন জানান, শুনেছি দুই পক্ষ ছাত্রদের মধ্যে একটু হাতাহাতি হয়েছে। কিন্তু পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পায়নি।
কলেজ অধ্যক্ষ অধ্যাপক ফজলুল হক জানান, ক্যাম্পাসে ছাত্রদের মাঝে এমন কোন ঘটনা বা অভিযোগ তার কাছে আসেনি। তবে বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখবেন বলে জানান।