বিএনপির বিক্ষোভ পুলিশি বাধায় সংক্ষিপ্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ পুলিশের বাধায় পন্ড হয়েছে বরিশাল জেলা ও মহানগর বিএনপি’র বিক্ষোভ মিছিল। তবে বাধা উপেক্ষা করে নেতা-কর্মীরা করেছেন সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশ। গতকাল রবিবার ২০ দলের কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে নেতা-কর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তি, গুম হত্যা, বিচার বর্হিভূত হত্যাকান্ডের প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে বরিশাল নগরীতে এই কর্মসূচি পালন করেন বিএনপি’র জেলা ও মহানগরের তৃনমুল পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা। মহানগর বিএনপি নেতা এ্যাড. আলী হায়দার বাবুল এর নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন আনোয়ারুল হক তারিন, মনিরুল আহসান মনির, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক এ্যাড. মহসিন মন্টু, এ্যাড. আবুল কালাম আজাদ, মন্টু খান প্রমুখ। তবে গতকালের কেন্দ্রীয় কর্মসূচীতে দেখা মেলেনি বরিশালের জ্যেষ্ঠ নেতাদের।
কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিকালে নগরীর নাজিরের পুল থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে বরিশাল জেলা ও মহানগর বিএনপি। মিছিলটি সদর রোড দলীয় কার্যালয়ের উদ্দেশ্যে জেলা খানার মোড়ে পৌছালে সেখানে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এসময় পুলিশের সাথে নেতা-কর্মীদের মৃদু বাক বিতন্ডা ও ধাক্কা ধাক্কির সৃষ্টি হয়। এক পর্যায় পন্ড হয়ে যায় বিক্ষোভ মিছিল। পরে সেখানেই অনুষ্ঠিত হয় সংক্ষিপ্ত সমাবেশ। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার দেশের সাধারন মানুষের বাক স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে। তারা দেশকে কারাগারে রূপান্তরিত করেছে। এই ফেসিষ্ট সরকারের বিরুদ্ধে কেউ কথা বললেই তাকে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীদিয়ে ধরে নিয়ে কারাগারে প্রেরন করা হচ্ছে। উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে দেয়া হচ্ছে হয়রানি মূলক মামলা।
নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশে গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠার লক্ষে ২০ দলীয় জোটের নেতৃত্বে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন কর্মসূচি পালন করে আসছে। কিন্তু তাতেও বাধা প্রদান করছে সরকার। তারা মানুষ পুড়িয়ে মেরে দায় চাপাচ্ছে ২০ দলের উপর। নির্বিচারে বিচার বহির্ভুত ভাবে ২০ দলের নেতা-কর্মীদের গুলি করে হত্যা ও গুম করে ফেলছে। এসব করে আ’লীগ আর বেশি দিন ক্ষময়তায় টিকে থাকতে পারবে না দাবী করে নেতৃবৃন্দ গ্রেফতার হওয়া নেতা-কর্মীদের নিঃশর্তে মুক্তি ও সকল হয়রানি মুলক মামলা প্রত্যাহার সহ নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধিনে একটি সুষ্ঠু নির্বাচন দাবি জানান তারা।