বিএনপি’র জাতীয় কমিটিতে বরিশালের আরো ৩৩ নেতা

রুবেল খান বিএন জাতীয় নির্বাহী কমিটিতে বরিশাল বিভাগ থেকে পদ পেয়েছেন আরো ২৮ জন। গতকাল শনিবার বিকালে ঘোষনা হওয়া কমিটির পূর্ণাঙ্গ তালিকায় তাদের নাম উঠে এসেছে। আর এদের নিয়ে জাতীয় কমিটিতে বরিশাল বিভাগ থেকে পদ পেলেন মোট ৩৩ জন নেতা। এদের সকলকেই রাখা হয়েছে ভাইস চেয়ারম্যান, যুগ্ম-মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদক, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, সহ দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক ও সদস্য পদে। এর পূর্বে ঘোষনা হওয়া আংশিক কমিটিতে যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদক ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক পদ পেয়েছেন এ্যাভোকেট মজিবুর রহমান সরোয়ার, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল ও এ্যাডভোকেট বিলকিছ আক্তার জাহান শিরিন সহ ৫ নেতা।

এদিকে বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটিতে পুরানদের অগ্রাধিকার বেশি দেয়া হয়েছে। নির্বাহী সদস্য পদে এসেছেন নতুন মুখও। তবে স্থায়ী কমিটি কিংবা চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা পরিষদে স্থান পায়নি দক্ষিণের কোন নেতা। এমনকি নতুন ঘোষিত বিএনপি’র পূর্ণাঙ্গ কমিটি থেকে বাদ পড়েছেন সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এবং মৎস্যজীবী বিষয়ক সম্পাদক। ফলে তাদের অনুসারী নেতা-কর্মীরা অনেকটা হতাশ হয়েছেন। জানা গেছে, গতকাল শনিবার বিএনপি’র মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলাম আমলগীর বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটি এবং চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা পরিষদের নাম ঘোষনা করেন। চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া মনোনিত পদ পাওয়াদের তালিকায় বরিশাল বিভাগ থেকে নতুন করে ভাইস চেয়ারম্যান, সম্পাদক ও সদস্য পদে ২৮ জনের নাম উঠে এসেছে। নতুন কমিটিতে বরিশাল থেকে ভাইস চেয়ারম্যান পদ পেয়েছেন ছয় জন জ্যেষ্ঠ নেতা। তবে পূর্বের কমিটিতেও এদের মধ্যে কয়েকজন ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন। বরিশাল থেকে যারা ভাইস চেয়ারম্যান পদ পেয়েছেন তারা হলেন- সাবেক আইন প্রতিমন্ত্রী এবং ঝালকাঠির বাসিন্দা ব্যারিষ্টার শাহজাহান ওমর, ভোলার মেজর (অব:) হাফিজ উদ্দিন আহম্মেদ, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পটুয়াখালীর বাসিন্দা এয়ার ভাইস মার্শাল ( অব:) আলতাফ হোসেন চৌধুরী, বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার সেলিমা রহমান, বরগুনার এ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন এবং মুলাদীর অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন।

এছাড়া বরিশাল বিভাগ থেকে সম্পাদক পদ পেয়েছেন তিনজন। এর মধ্যে আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পদে সাবেক ছাত্রনেতা এ্যাডভোকেট মাসুদ আহম্মেদ তালুকদার, প্রশিক্ষন বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশারেফ হোসেন ও সহ দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক পদে মনির হোসেনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

তবে জাতীয় নির্বাহী কমিটিতে নতুন কার্যনির্বাহী সদস্য পদে নতুন মুখ হিসেবে স্থান পেয়েছেন পটুয়াখালীর প্রকৌশলী ফারুক আহম্মেদ, নেছারুল হক, গলাচিপার হাসান মামুন, ভোলার নুরুল ইসলাম নয়ন ও পিরোজপুরের এলিজা জামান।

এছাড়া সাবেক কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্য বরগুনার মতিয়ার রহমান তালুকদার, নজরুল ইসলাম মোল্লা, ভোলার নাজিম উদ্দিন আলম, হাফিজ ইব্রাহীম, মুলাদীর, মোশারেফ হোসেন মঙ্গু, বাকেরগঞ্জের আবুল হোসেন খান, উজিরপুরের সরফুদ্দিন আহম্মেদ সান্টু, গৌরনদীর ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সোবাহান, বরিশাল সদরের আজিজুল হক আক্কাস, ঝালকাঠি’র মিসেস জেবা খান, পিরোজপুরের আজিজুর রহমান বাবুল গাজী, আলমগীর হোসেন ও রফিকুল ইসলাম মাহাতাবকে নতুন কমিটিতেও কার্যনির্বাহী সদস্য পদ দেয়া হয়েছে।

এছাড়া পূর্বে বিএনপি’র দ্বিতীয় ধাপে ঘোষনা হওয়া যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক পদে নেতাদের মধ্যে বরিশালের ৫ জনকে মনোনিত করেন দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। এর মধ্যে যুগ্ম মহাসচিব পদে সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান সরোয়ার ও যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, নারী নেত্রী এ্যাভোকেট বিলকিছ আক্তার জাহান শিরিনকে সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ঝালকাঠির মাহাবুবুল হক নান্নু ও বরিশাল জেলা উত্তর এর সাধারন সম্পাদক আকন কুদ্দুসুর রহমানকে সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মনোনিত করা হয়।

এদিকে গতকাল শনিবার ঘোষনা হওয়া বিএনপি’র জাতীয় কমিটিতে স্থান পাননি বরিশাল বিভাগের সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেক নজরুল ইসলাম খান রাজন। তার পাশাপাশি জাতীয় কমিটির পদ হারিয়েছেন বরিশাল সিটি মেয়র আহসান হাবিব কামাল। কেন্দ্রের সাবেক কমিটিতে তিনি মৎস্যজীবী বিষয়ক সম্পাদক পদে ছিলেন। নতুন কমিটিতে তার ঐ পদে লুৎফর রহমান কাজলকে দায়িত্ব দেয়া হলেও নতুন করে কোন পদের দায়িত্ব দেয়া হয়নি আহসান হাবিব কামালকে। তবে তিনি বিএনপি’র চেয়ারপার্সন এর উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হবেন বলে গুঞ্জল থাকলেও শেষ পর্যন্ত সেই তালিকাতেও তার নামটি অন্তর্ভূক্ত করেননি দলের চেয়ারপার্সন। ফলে আহসান হাবিব কামাল অনুসারী নেতা-কর্মীরা অনেকটা হতাশ হয়েছেন।