বিউটি সিনেমা হল বিক্রির পর ভূয়া ওয়ারিশ পরিচয়ে চাঁদা দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশাল নগরীর প্রাণকেন্দ্রের ঐতিহ্যবাহী বিউটি সিনেমা হল জমি সহ বিক্রয় হওযার পরপরই ভূয়া ওয়ারিশ মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। এ নিয়ে বিউটি সিনেমা হল এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন মুহূর্তে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে যেতে পারে বলে স্থানীয় দোকানীরা আশংকা প্রকাশ করছে। বিউটি সিমেনা হলের সম্পত্তি জুলফিকার উদ্দিন (জুলু) চৌধুরীকে তার মায়ের দেয়া সম্মতি তিনি নিজের নামে রেকর্ড করেন। ওই জমির সকল খাজনাদি তিনি পরিশোধ করে আসছেন। জুলু চৌধুরী সাম্প্রতি বিউটি সিনেমা হল জমিসহ কুদ্দুস মিয়ার সাথে বায়না করেন। জমি ক্রেতা সিনেমা হলের আসবাবপত্র ভেঙ্গে নেয়ার জন্য শ্রমিক দিয়ে কাজ শুরু করেন। এ সময় শুক্রবার বিকেল ৪টায় ওই জমি ওয়ারিশ দাবী করে সৎ বোনের ছেলে সোহান ক্ষমতাসীন দলের ক্যাডার ছলিম দলবল নিয়ে বিউটি হলের মধ্যে প্রবেশ করে শ্রমিকদের কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন। দাবীকৃত ১ কোটি টাকা না দিলে কাউকে কাজ করতে দেয়া হবে না বলে হুমকী দেন। এ ঘটনার পর থেকে জমি সহ বিউটি সিনেমা হল ক্রেতা শ্রমিকদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। জমিসহ সিনেমা হল বিক্রেতা জুলফিকার উদ্দিন চৌধুরী (ঝুলু) জানান ওই জমিসহ ভবন বিক্রয় করে দেয়া হয়েছে। জমির সকল খাজনা, ট্যাক্স, নিয়মিত পরিশোধ করে আসায় ওই জমির মালিক ঝুলু চৌধুরী ছাড়া আর কেউ নয়। ভূয়া ওয়ারিশ দাবীদার বিউটি হল ক্রেতার কাছে মোটা অংকের উৎকোচ দাবী করছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।