বাবুগঞ্জের সহকারি উপজেলা শিক্ষা অফিসারসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ আদালতের নির্দেশ অমান্য করে কায্যক্রম পরিচালনা করার অভিযোগে বাবুগঞ্জের সহকারি উপজেলা শিক্ষা অফিসারসহ ৫ জনকে বিবাদি করে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল বরিশালের বাবুগঞ্জ সহকারি জজ আদালতে এ নালিশি মামলাটি দায়ের করেন বাবুগঞ্জের চরজাহাপুর গ্রামের বাসিন্দা জাহাঙ্গীর হাওলাদারের স্ত্রী তানজিলা বেগম। আদালতের বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে পরবর্তি নির্দেশের জন্য রেখে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। মামলার অন্যন্য বিবাদিরা হল, বাবুগঞ্জ  উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো: আমিরুল ইসলাম, বাবুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহি অফিসার বাকাইদ হোসেন, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার তৌহিদুল ইসলাম ও বরিশাল বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা উপ-পরিচালক মাহাবুব এলাহি। মামলার অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, বাবুগঞ্জ উপজেলাধিন ১২ নং চরজাহাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২০১৪ সালের গঠিত ম্যানেজিং কমিটি এবং একই বিদ্যালয়ের দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরী পদে নিয়োগের জন্য গত ২৬ জুন একটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। ঐ সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে আদালতে গত ৬ জুলাই একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় উপরোক্ত বিবাদিদের সহ মোট ২১ জনকে বিবাদি করা হয়। ঐ মামলার প্রেক্ষিতে উপরোক্ত বিবাদিদের সহ মোট ১৫ বিবাদিকে সোকজ করে আদালত। ঐ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির উপর কেন অস্থায়ী নিশেধাজ্ঞা জারি করা হবেনা তা জানতে চেয়ে বিবাদিদের তিন দিনের সময় বেধে দেয়া হয়েছিল। ১৪ জুলাই ঐ আদেশ হাতে পেয়েও বিবাদিরা তা উপেক্ষা করে এবং মোটা অংকের ঘুস বানিয্যের মাধ্যেমে গত ১৯ আগষ্ট তাদের ঐ নিয়োগের কার্যক্রম সম্পন্ন করে।