বর্ণাঢ্য আয়োজনে ইয়ুথ উৎসব অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বর্ণাঢ্য আয়োজন, উৎসাহ- উদ্দীপনা ও জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে ইয়ুথ ফেস্টিভ্যাল-২০১৫। গতকাল সোমবার বিকাল ৪ টায় বরিশাল ইয়ুথ সোসাইটির আয়োজনে নগরীর শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত এই উৎসবে অংশগ্রহণ করেছে বরিশালের হাজারো তরুণ-তরুণী। এই ইয়ুথ ফেস্টিভ্যালকে ঘিরে তাদের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়। করতালি ও চিৎকার-চেচামেচীতে মুখরিত ছিল মেডিকেল কলেজ অডিটোরিয়াম। ইয়ুথ সোসাইটির আহবায়ক ফায়েজ বেলালের সভাপতিত্বে ইয়ুথ ফেস্টিভ্যালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক ড. গাজী মোঃ সাইফুজ্জামান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক আজকের পরিবর্তণের প্রকাশক ও সম্পাদক এবং বরিশাল ইয়ুথ সোসাইটির অন্যতম উপদেষ্ঠা কাজী মিরাজ মাহমুদ, ইউ.সি.সি পরিচালক ইলিয়াছ হোসেন সুমন, রিস্যাল এন্টার প্রাইজ প্রোপার্টিজ এন্ড রিস্যাল প্রিন্টিং এবং প্যাকেজিং লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহমুদ হোসেন। এসময় মোবাইল কনফারেন্সের মাধ্যমে ইয়ুথ ফেস্টিভ্যালে আগত তরুণ-তরুণীদের উদ্দেশ্যে দিক নির্দেশনা মূলক বক্তব্য দিয়েছেন বরিশাল-২ আসনের সাংসদ অ্যাডঃ তালুকদার মোঃ ইউনুস। তিনি বলেন, ইয়ুথ সোসাইটি যুব সমাজকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। আত্ম-মানবতার সেবায় সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে ক্ষুধা-দারিদ্র মুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সর্ব প্রথম ভূমিকা রাখা উচিৎ এই যুব সমাজের। কারণ তারাই পারে মাদক, সন্ত্রাস মুক্ত সমাজ গড়তে। অন্য দিকে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক ড. গাজী মোঃ সাইফুজ্জামান বলেন, তরুণরা যেকোন লক্ষ্য বা উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে কাজ শুরু করলে সবার আগে সফলতা লাভ করে। তাদের ইচ্ছাশক্তি ও উৎসাহের ফলে সাফল্য অর্জন করে। এছাড়াও তরুণদের কর্মের ফলে দেশের উন্নয়ন কাজ ব্যাহত না হয়, সেদিকে সদা দৃষ্টি রাখতে হবে। এছাড়াও ডিজিটাল বরিশাল গঠণের মধ্যদিয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে তরুণদের ভূমিকা থাকবে শতভাগ বলেও আশাব্যক্ত করেণ তিনি। অন্যদিকে ইয়ুথ ফেস্টিভ্যালের বিশেষ অতিথি ইয়ুথ সোসাইটির উপদেষ্ঠা কাজী মিরাজ মাহমুদ তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, এই দেশ যখন মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হচ্ছে,ঠিক তখনই তরুণরা মাদকাসক্তের দিকে বেশি আকৃষ্ট হচ্ছে। তাই এই তরুণ সমাজকে এই ইয়ুথ ফেস্টিভ্যাল থেকে অঙ্গীকারবদ্ধ হতে হবে “মাদককে না বলা এবং মাদকের বিরুদ্ধে সেচ্চার কন্ঠে এগিয়ে আসা”। ভবিষ্যতে যুব সমাজকে নিয়ে যেকোন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে পাশে থেকে সহযোগিতা করবেন বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন। ইয়ুথ সোসাইটির সদস্যদের অংশগ্রহণে ফেস্টিভ্যালে ফ্যাশন শো, সাইকেল শো, নাচ, গান, নাটক, তরুণ উদ্যোক্তাদের এ্যাওয়ার্ড প্রদান এবং ব্যান্ড শো ও ডিজে পার্টি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিকে ইয়ুথ ফেস্টিভ্যাল শেষে ইয়ুথ সোসাইটির আহবায়ক ফায়েজ বেলাল ইয়ুথ ফেস্টিভ্যালকে সুন্দরভাবে সম্পন্ন করার জন্য বরিশালের সকল তরুণ-তরুণী এবং যাদের অনুপ্রেরনা ও সহযোগিতার মাধ্যমে এই অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।