বরিশাল-ঢাকা রুটে বাংলাদেশ বিমান বন্ধের ষড়যন্ত্র!

বিশেষ প্রতিবেদক ॥ বরিশাল সেক্টরে জাতীয় পতাকাবাহী বিমান-এর সাপ্তাহিক তৃতীয় ফ্লাইট চালুর মুখেই কথিত যাত্রীর অভাবের কথা বলে বাতিল করা হয়েছে গতকাল। অথচ বেসরকারী ‘ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স’এর ফ্লাইটে গতকাল শতাধীক যাত্রী যাতায়াত করেছে। গ্রীষ্মকালীন সময়সূচীতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স বরিশাল সেক্টরে গতকাল থেকে প্রতি মঙ্গলবার একটি ফ্লাইট চালু করার কথা। এছাড়াও প্রতি রবিবার সকালে ও বৃহস্পতিবার বিকেলে আরো দুটি ফ্লাইট প্রবর্তন করা হয়েছে।
কিন্তু নতুন এ সময়সূচী আরো মাসখানেক ঘোষণা করা হলেও তা নিয়ে বিমান-এর বরিশাল অফিস সহ কেন্দ্রীয় অফিসের কোন প্রচারনা নেই। এমনকি বরিশাল অফিসে নতুন জেলা ব্যবস্থাপকসহ স্টেশন ম্যানেজার কর্মরত থাকলেও গতকাল পর্যন্ত নতুন এ সময়সূচী নিয়ে তারা সরকারীÑবেসরকরী পর্যায়ে কোন প্রচারনা বা বিক্রয় সম্প্রসারনের কাজটি করেন নি বলে অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া বিমান বন্ধের ষড়যন্ত্রে কাজ করছে একটি মহল।
ফলে গতকাল শুধুমাত্র যাত্রীর অভাবে বরিশাল সেক্টরে বিমান-এর সাপ্তাহিক তৃতীয় ফ্লাইটটি বাতিল হল। গত এক বছরে এই প্রথম যাত্রীর অভাবে বরিশাল সেক্টরে কোন ফ্লাইট বাতিল করল বিমান। কোন প্রচারনা না থাকায় গতকাল বরিশাল থেকে ঢাকামুখি ৬জন এবং ঢাকা থেকে ৫জন যাত্রী বরিশালের ফ্লাইটে টিকেট সংগ্রহ করে বলে জানা গেছে। ফলে যাত্রীর অভাবের কথা বলেই বিমান গতকাল বরিশাল সেক্টরের ফ্লাইটটি বাতিল করে। গত বছর ৮এপ্রিল বরিশাল সেক্টরে জাতীয় পতাকাবাহী বিমান চালু হবার পরে যাত্রীর অভাবে গতকালই কোন ফ্লাইট বাতিল করা হল। আর গতকালই ছিল চলতি বছরের গ্রীষ্মকালীন সময়সূচীতে বরিশাল সেক্টরে প্রথম ফ্লাইট।
নতুন সময়সূচী অনুযায়ী ৭৪ আসনের ‘ড্যস-৮ কিউ-৪০০’ উড়জাহাজ প্রতি রবিবার সকাল সোয়া ১০টায় ঢাকা থেকে এবং ১১টা ১০ মিনিটে বরিশাল থেকে, মঙ্গলবার ঢাকা থেকে দুপুর সোয়া ১টায় ও বরিশাল থেকে ২টা ৪০মিনিটে এবং বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টায় ও বরিশাল থেকে বিকেল ৫টা ২৫মিনিটে বিমান ফ্লাইটে যাত্রী পরিবহন করা হবে।
এদিকে বরিশাল সেক্টরে যাত্রীদের বিমান বন্দরে যাতায়াতের জন্য যানবাহনের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেয়া হলেও গতকাল পর্যন্ত বরিশাল বিমান অফিস থেকে বিষয়টি নিয়ে কোন ইতিবাচক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বরিশাল সেক্টরে বিমান যাত্রীদের জন্য বাতানুকুল বা ভাল মানের বাস সংগ্রহের কথা বললেও কোন কিছুই হয়নি। স্থানীয় বিমান অফিসের দায়িত্বশীল মহল ‘খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে’, আর ‘চেষ্টা করা হচ্ছে’ বলে জানিয়েই সব কিছু এড়িয়ে যাবার চেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।