বরিশালে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার উত্তরপত্র পাচারকারী ৪ সদস্য গ্রেফতার

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার উত্তরপত্র পাচারকারী চক্রের ৪ সদস্যকে বৃহস্পতিবার বিকেলে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। নগরীর ঝাউতলার প্রথম গলি এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
এসময় জব্দ করা হয়েছে আলমত সম্মিলিত একটি ল্যাবটব, ডেক্সটব কম্পিউটার, ৪টি প্রিন্টার, ১টি রাউটার, মডেম, পেন ড্রাইভ, নগদ ১ লাখ টাকাসহ সিট প্লান, পরীক্ষার্থীদের নামের তালিকা, পরীক্ষার প্রবেশপত্র ও পিন কোর্ড। তবে অভিযানের পূর্বেই পালিয়ে যায় ঘটনার মুলহোতা জুয়েল রানা। গ্রেফতারকৃতরা হলো-নগরীর কাউনিয়া এলাকার বাসিন্দা লিটন চক্রবর্তী, উজিরপুরের বাসিন্দা আজিবর রাঢ়ী ও পটুয়াখালীর কলাপাড়া এলাকার বাসিন্দা আয়নাল ও ইউসুফ মুন্সি।
মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারি কমিশনার মো. আবু সাঈদ জানান, ঝাউতলার প্রথম গলি এলাকার আলতাফ হোসেনের বাসভবন ভাড়া করে একটি চক্র সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস করার জন্য কমপক্ষে ৩’শ পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে জনপ্রতি ৫০হাজার টাকা করে উত্তোলন করে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এ খবর পেয়ে তারা ওই বাসভবনে অভিযান চালায়। এসময় ওই চক্রের ৪ জনকে আটক করা হলেও ঘটনার মুলহোতা জুয়েল রানা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। তবে জুয়েলকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। সহকারী কমিশনার আরও জানান, শুধু প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষাই নয়, বিভিন্ন পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে বিপুল অংকের টাকার বিনিময়ে এ চক্রটি বিভিন্ন কৌশলে উত্তরপত্র সাপ্লাই করে আসছিলো। তাদের সাথে বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের বেশ কয়েকজন এক্সপার্টও রয়েছে। তাদের সনাক্তের চেষ্ঠা চলছে।