বরগুনায় শিক্ষক ধর্ষণকারীদের বিচার দাবীতে নগরী সহ জেলা-উপজেলায় শিক্ষকদের মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরগুনার বেতাগী উপজেলার উত্তর করুনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের উপর সন্ত্রাসী কর্তৃক পাশবিক নির্যাতনের প্রতিবাদ ও সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবীতে বরিশালে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন শিক্ষকরা। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় নগরীর সদর রোডে অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সামনে বরিশাল সদর উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সর্বস্তরের শিক্ষক এবং শিক্ষিকাবৃন্দের ব্যানারে এই প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
প্রাথমিক শিক্ষক নেতা আব্দুল হাই এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মসূচিতে বরগুনায় সহকারী শিক্ষিকার ধর্ষনকারীর সর্বোচ্চ বিচার দাবী করে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক নেতা আবুল কালাম আজাদ, শিক্ষিকা আয়শা পারভিন, শিক্ষক আনোয়ার হোসেন, মো. মেহেদি হাসান, বরিশাল মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক আসাদুল হক আসাদ, সহকারী শিক্ষিকা মাহমুদা খানম রিপি, সেলিনা আক্তার, শাহনাজ পারভিন, মিন্টু কুমার কর, নাসির উদ্দিন, মতিউর রহমান প্রমুখ।
মানববন্ধনে একাত্মতা প্রকাশ ও বিচারের দাবী জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বরিশাল শিশু সংগঠন খেলাঘর এর সভাপতি জীবন কৃষ্ণ দে, বরিশাল সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সহ-সভাপতি শুভংকর চক্রবর্তী ছাড়াও বরিশাল সদর উপজেলার দুইশত চারটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, সহকারী শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহন করে।
অপরদিকে একই ঘটনায় বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক সমাজের কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহ-সভাপতি জহিরুল ইসলাম জাফরের সভাপতিত্বে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সম্মুখে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। এসময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সাদা মনের মানুষ জীবন কৃষ্ণ দে, মহিল সংস্থার সভাপতি রাবেয়া বেগম, সাধারণ সম্পাদক পুষ্প রাণী, সংগঠনের জেলা শাখার শংকর চন্দ্র পোদ্দার, মহানগর নারী নেত্রী ইরানী খানম, সোহেলী পারভীন, হাসিনা বেগম, কেএম সাব্বির, এমএ আউয়াল, নূরনবী প্রমুখ।
এদিকে ধর্ষনের প্রতিবাদে বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করা হয়েছে। একই সাথে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। দোষীদের শাস্তির দাবী জানিয়ে মানববন্ধন করেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক শিক্ষিকা।
বাবুগঞ্জ প্রতিবেদক জানান, চত্বরে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচীতে ১৩২ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক শিক্ষিকা অংশগ্রহন করেন। বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ নূরুল হক, মোঃ মাসুদ আহম্মেদ, জাহিদুর রহমান সিকদার, গাজী হারুন অর রশিদ, সেলিম খান, শহিদুল ইসলাম, মিজানুর রহমান প্রমুখ।
বানারীপাড়া প্রতিবেদক জানান, উপজেলায় মানবন্ধনে মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি, প্রেসক্লাব, পৌরসভা, নতুন মুখ সহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহন করেন। সংগঠনের সভাপতি শাকিল আহাম্মেদ’র সভাপতিত্বে ও সম্পাদক জাহিদ হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সাবেক সহ-সভাপতি ও নতুন মুখ সাহিত্য সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন মানিক,উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক মোঃ ফকরুল আলম,উপজেলা জাসদ সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন,কাউন্সিলর গৌতম সমদ্দার,উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তফা কামাল,মোঃ মজিবর রহমান বাবুল,যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আঃ সালাম,নিপেন্দ্র সমদ্দার,বানারীপাড়া সদর ইউনিয়নের সভাপতি অঞ্জন সরকার প্রমূখ।
আগৈলঝাড়া প্রতিবেদক জানান, উপজেলায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি শিক্ষক মো. সোহরাব হোসেন বাবুল, সাধারন সম্পাদক নবনী কুমার বৈদ্য, শিক্ষক মো.আবুল কালাম, দীনেশ চন্দ্র ঘটক, মো.জাহিদ হোসেন খান, বিপুল চন্দ্র পান্ডে, বিষ্ণু পদ হালদার, নমিতা রানী দাশ, শ্যাম প্রসাদ ঢালী প্রমুখ। মানববন্ধন চলাকালে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জসীম উদ্দিন সরদার একাত্বতা প্রকাশ করে অংশ গ্রহন করে। পরে শিক্ষকরা উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহম্মেদ রাসেলের মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন।
গৌরনদী প্রতিবেদক জানান, উপজেলার সম্বিলিত শিক্ষক সমিতর উদ্যোগে বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন কর্মসূচী ও প্রতিবাদ সমাবেশে ৪টি শিক্ষক সমিতির অধীনে ১২১টি শিক্ষক প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকগন অংশ নেন।
মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও)র মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মরকলিপি প্রদান করা হয়। পরে গৌরনদী উপজেলা চ¦ত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্বে করেন গৌরনদী উপজেলা সম্বিলিত শিক্ষক সমিতির কর্মসূচী পালন কমিটির আহবায়ক ও গৌরনদী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হোসনে আরা খানম। কর্মসূচীতে একাত্মতা ও সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন গৌরনদী বিআরডিবির সাবেক চেয়ারম্যান ও গৌরনদী পৌর নাগরিক কমিটির সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক জহুরুল ইসলাম জহির, গ্রামীণ সাংবাদিক সংগঠনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব ও গৌরনদী প্রেসক্লাবের সাবে সভাপতি মোঃ গিয়াস উদ্দিন মিয়া, রিপোর্টাস ইউনিটির সাধারন সম্পাদক বেলাল হোসেন, বন্ধুসভার সভাপতি পলাশ তালুকদার। বক্তব্য রাখেন গৌরনদী উপজেলা প্রাথমিক প্রধান শিক্ষক সমিতির সিনিয়র সভাপতি মো. সেলিম আহম্মেদ, সাধারন সম্পাদক কুতুব উদ্দিন, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. মিজানুর রহমান, সাধারন সম্পাদক সফিকুল ইসলাম, সদ্য জাতীয়করন প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. শওকত আলী, সাধারন সম্পাদক আব্দুস সালাম, সহকারী শিক্ষক সমাজের সভাপতি মো. আবু হানিফ মোল্লা, সাধারন সম্পাদক সুদাম পাল।
ঝালকাঠি প্রতিবেদক জানান, কেন্দ্রিয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে দুপুর তিনটা থেকে ঘন্টাব্যাপি সদর উপজেলা পরিষদ চত্বরে এ কর্মসূচি পালন করেন ঝালকাঠি সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি। পরে একই দাবীতে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারক লিপি দেন শিক্ষকরা। এর আগে ঝালকাঠি সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ফারুক খানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনের সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি নূরুল হক, সদর উপজেলা প্রধান শিক্ষক সমিতির আহ্বায়ক নূরুন্নাহার বেগম, সহকারী শিক্ষক সমিতির জেলা আহবায়ক হাসানুজ্জামান প্রমুখ। এছাড়া সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ইসরাত জাহান সোনালী ও নলছিটি উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ডালিয়া নাসরিন একাত্মতা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন।
তজুমদ্দিন প্রতিবেদক জানান, বেলা আড়াই টায় তজুমদ্দিন উপজেলা পরিষদ চত্তরে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে ধর্ষনের সঠিক বিচার দাবি করে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি সভাপতি মোঃ কলিমুল্যাহ মনু, সম্পাদক মোঃ রফিকুল্যাহ, সাবেক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম, শিক্ষক নেতা মলয় কৃষ্ণ দাস, বিধুভূষন রায়, মহিউদ্দিন, মিতালী দত্ত, শাখাওয়াত হোসেন, নুরনবী, নিজামউদ্দিন প্রমুখ।