ববির রেজিষ্টার কক্ষে হামলা ভাংচুর ২৮দিনের মধ্যে জমা দেয়ার নির্দেশ ৮০ দিনেও হয়নি

এম হোসেন॥ চার কার্য সপ্তাহের তদন্ত প্রতিবেদন ৮০ দিনেও জমা দিতে পারেনি বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) রেজিস্ট্রার কক্ষে হামলা ভাংচুরের ঘটনায় গঠিত কমিটি। এখন পর্যন্ত স্বাক্ষ্য গ্রহনই শেষ করতে পারেনি তারা, এতে পার পেয়ে যাচ্ছে অপরাধীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটছে একের পর এক অপ্রীতিকর ঘটনা। বিঘিœত হচ্ছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ। প্রশাসনের প্রতি আস্থা হারাচ্ছে সাধারন শিক্ষার্থীরা। জানা গেছে, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় গত ৫জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্টার কক্ষে অতর্কিত হামলা ভাংচুর চালায় কতিপয় শিক্ষার্থীরা। এই ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৫ তম সিন্ডিকেট সভায় জড়িত ৬শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়। পাশাপাশি অধিকতর তদন্তের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য পফেসর হানিফকে প্রধান করে সাত সদস্য বিশিস্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে। ৪ কার্য সপ্তাহের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেয় বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট সভা। অথচ প্রায় ৩মাস শেষের পথে। এখনও প্রতিবেদন জমা পড়েনি। খোজ খবর নিয়ে জানা গেছে, স্বাক্ষ গ্রহন চলছে। সূত্র জানায় গতমাসে হামলার সাথে জড়িতও কতিপয় শিক্ষার্থীদের সাক্ষাৎ গ্রহন করেছে তদন্ত কমিটি এরপর আগামী ২১ সেপ্টেম্বর ভুক্তভোগী সহ যারা অধিকতর জড়িত বলে মনে করা হয়েছে তাদের ডাকা হয়েছে। একটি বিশ্বস্ত সূত্রে জানাগেছে প্রায় ১০-১২ জনের স্বাক্ষ্য নেয়া হবে। যাদের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়েল হামলার শিকার সহকারী রেজিষ্ট্রার মোঃ বাহাউদ্দিন গোলাপ সেকসন অফিসার মোঃ নুসরাত জাহান সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী ও রয়েছেন। এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের হামলার শিকার সহকারী রেজিষ্ট্রার মোঃ বাহাউদ্দিন গোলাপ জানান, আমার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের প্রতি আস্থা আছে। তিনি আরো বলেন, তদন্ত কমিটি সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে দ্বিধা করবে না। তদন্ত কমিটির প্রধান বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর মোঃ হনিফ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, অন্যান্য সদস্যদের সময় মতো পাওয়া যায় না। তিনি আরো বলেন আগামী রোববারের বৈঠকে একটি সিদ্ধান্ত নিবো।