বঙ্গবন্ধু উদ্যানে শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ “উন্নয়নের রোল মডেল শেখ হাসিনার বাংলাদেশ” এই স্লোগানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে তিনদিনব্যাপী উন্নয়ন মেলা শুরু হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে এই মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে উন্নয়ন মেলায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম। এতে অতিথি হিসেবে ছিলেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. এস এম ইমামুল হক, পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব শামীমা ইয়াসমিন, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) মো. গোলাম মোস্তফা, প্রবাসী কল্যান মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব মোজাফ্ফর আহমেদ, সাবেক পুলিশ সুপার মাহবুব উদ্দিন বীর বিক্রম, বরিশাল রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি আকরাম হোসেন, মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আবুল কালাম আজাদ, ডিজিএফআই প্রধান কর্ণেল শরীফ, কর অঞ্চলের কর কমিশনার মো. জাহিদ হাছান, উপপুলিশ কমিশনার কামরুল আমিন, উপপুলিশ কমিশনার হাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক ) ও স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক আবুল কালাম আজাদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব ) আবুল কালাম তালুকদার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মনির হোসেন হাওলাদার, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শহীদুল ইসলাম, বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওয়াহিদুজ্জামান, পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক আহসান হাবিব, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. হুমায়ুন কবির, বরিশাল সদর উপজেলার চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু, বরিশাল সাংষ্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সভাপতি এ্যাড. এস এম ইকবাল, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন কবির, কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপপরিচালক রামেন্দ্র নাথ বাড়ৈ, জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা একরামুল করীমসহ র‌্যাব, বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ। এর আগে উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৯ টায় নগরের সার্কিট হাউস থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করে জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ। শোভাযাত্রাটি নগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে মেলা প্রাঙ্গন বঙ্গবন্ধু উদ্যানে গিয়ে শেষ হয়। তিনদিনব্যাপী এই মেলায় বর্তমান সরকারের গৃহীত সকল উন্নয়ন কার্যক্রম জনগন তথা প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে তুলে র্ধা হবে। উন্নয়ন মেলায় জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, সমাজসেবা, ফায়ার সার্ভিস, সিটি কর্পোরেশন, কৃষি বিভাগ, মৎসবিভাগ সহ সকল সরকারী-বেসরকারী দপ্তর এবং বিভিন্ন উন্নয়নমুলক সংস্থার অংশগ্রহনে মোট ১৬৭ টি স্টল রয়েছে। প্রতিদিন বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত মেলা উন্মুক্ত থাকবে সকলের জন্য।
এদিকে মেলার প্রথম দিনে দুটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিকেল সাড়ে ৩ টায় অনুষ্ঠিত সেমিনারের বিষয় ছিল “বঙ্গবন্ধুর উন্নয়ন দর্শন ও আজকের বাংলাদেশ” এবং বিকেল সাড়ে ৫ টায় অনুষ্ঠিত সেমিনারের বিষয় ছিল “মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অর্জনসমূহ ও বরিশালের উন্নয়ন সম্ভাবনা”।
এদিকে তিনদিনব্যাপী উন্নয়ন মেলায় রয়েছে দেশীয় খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। প্রথমদিনে দুপুর ২ টা থেকে ৩টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়েছে বাবুগঞ্জ লাঠিয়াল দলের পরিবেশনায় লাঠিখেলা এবং সন্ধ্যা ৭ টায় নৃত্য, উন্নয়নমুলক জারিগান, বরিশাল ইতিহাস ও ঐতিহ্য বিষয়ক নাটিকা এবং একক সঙ্গীত পরিবেশন করে স্থানীয় শিল্পীবৃন্দ। এদিকে উন্নয়ন মেলা নিয়ন্ত্রন ও যাবতীয় তথ্য প্রদানের জন্য রয়েছে নিয়ন্ত্রন কক্ষ। আর এই নিয়ন্ত্রন কক্ষ পরিচালনার জন্য জেলা প্রশাসনের একজন সহকারী কমিশনার সর্বদা নিয়োজিত রয়েছেন। উন্নয়ন মেলা বিষয়ে জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান জানান, সরকারের নানাবিধ উন্নয়ন কার্যক্রম জনগনের কাছে তুলে ধরতেই দেশব্যাপী উন্নয়ন মেলার অংশ হিসেবে বরিশালেও অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আর এই উন্নয়ন মেলার ফলে জনগন সরকারের উন্নয়ন কাজের সাথে সম্পৃক্ত হতে পারবে এবং সরকারের মুখপাত্র হিসেবে প্রচারনায় অংশগ্রহন করতে পারবে। তাছাড়া উন্নয়ন মেলার মাধ্যমে সরকারের ভবিষ্যত কর্মপরিকল্পনা, এমডিজি অর্জনে সরকারের সাফল্য প্রচার ও এসডিজি কার্যক্রমে জনগনকে উদ্বুদ্ধ করা হবে।