বকেয়া আদায়ে বিসিসির পানির পাম্পের বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বকেয়া বিল পরিশোধ না করায় বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করন অভিযান অব্যাহত রয়েছে। গতকাল বুধবার পানির পাম্প সহ কয়েকটি স্থানে রাস্তার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। নগরীর চাদমারী বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১ বিসিসি’র বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করনে এই অভিযোগ চালান।
বরিশাল ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির বরিশাল নগরীর বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরন বিভাগ-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী এটিএম তারিকুল ইসলাম পরিবর্তনকে জানান, বরিশাল সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ গত ৫ বছর বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করছে না। এজন্য গত ৫ বছরে তাদের কাছে সাড়ে ১৩ কোটি টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া হয়েছে। একাধিক বার নোটিশ দেয়ার পরেও কর্তৃপক্ষ বিল পরিশোধ করেনি। যে কারনে তারা উপর মহলের নির্দেশে বিসিসি’র বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করছেন।
তারিকুল ইসলাম জানান, গতকাল প্রথম দিনে নগরীর রূপাতলী বাস টার্মিনাল এবং বটতলা এলাকায় রোড লাইনের বিদ্যুৎ সংযোগ কেটে দিয়েছেন। এছাড়া জাগুয়া ও সৈয়দ সরকারী হাতেম আলী কলেজ সংলগ্ন দুটি পানির পাম্পের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছেন। পরবর্তীতে অন্যান্য বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে বলেও জানান তিনি।
এদিকে গতকাল সড়কের বিদ্যুৎ লাইন বিচ্ছিন্ন করায় রাস্তায় অন্ধকারের সৃষ্টি হয়েছে। দোকান কিংবা মোটর যানের আলোর উপর নির্ভর করে পথ চলতে হচ্ছে পথচারীদের। এমনকি বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করায় পানি পাচ্ছেনা বিসিসি’র শত শত মানুষ। বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়ায় পানির পাম্প চালু না করতে পারায় সংশ্লিষ্ট বাসবাস কারীদের গৃহে পানি পৌছায়নি। যার ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে তাদের।
এদিকে রাস্তা এবং পাম্পের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার বিষয়ে জানতে চাইলে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আহসান হাবিব কামাল বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। তবে এই মুহুর্তে এতগুলো টাকা পরিশোধ করা সম্ভব হয়। তাই বিষয়টি মন্ত্রনালয়কে জানানো হয়েছে বলে মেয়র জানিয়েছেন।