ফরিদপুরে উন্নয়ন শীর্ষক মুক্ত সভায় স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী আমার জীবনের সর্বশক্তি দিয়ে ফরিদপুরবাসীর উন্নয়নে কাজ করে যাব

সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলী, ফরিদপুর থেকে॥ ফরিদপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর আয়োজনে গতকাল অম্বিকা মেমোরিয়াল হলে সকালে ফরিদপুরের উন্নয়ন র্শীষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী আলহাজ্ব ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন,আমি আমার জীবনের সর্বশক্তি দিয়ে ফরিদপুরের উন্নয়ন করছি,আজকের এই অনুষ্ঠানে আপনারা ফরিদপুরের উন্নয়নে যে সুনিদিষ্ট প্রস্তাবনা রাখলেন এতে প্রমানিত হয় আপনারা ফরিদপুরের উন্নয়ন নিয়ে ভাবেন। তিনি আরো বলেন, আমাকে নিয়ে এবং আমার মন্ত্রীত্ব নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। এটা আমার মন্ত্রীত্ব ও প্রধান মন্ত্রীর উপর আঘাত ,আপনারা সকলে এক্যবদ্ধ হয়ে এই ষড়যন্ত্রের জবাব দিবেন । তিনি আরো বলেন, আমার বিরুদ্ধে হিন্দু বাড়ি দখলের অভিযোগ উঠেছে ,আমি এই সংবাদ দেখে অবাক হয়েছি ,বর্তমান বাজার দরের চেয়ে বেশি টাকা দিয়ে এই বাড়িটি আমি ক্রয় করেছি । বাড়ির মালিকের জীবনের নিরাপত্তা ছিলনা আমি তাদের নিরাপত্তা দিয়েছি । অথচ আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা একটি অভিযোগ তুলে আমার ভাবমুর্তি নষ্ট করার চেষ্টা চলছে । তিনি ফরিদপুরের উন্নয়নের ব্যাপারে বলেন, বঙ্গ বন্ধুর নামে একটি বিশ্ববিদ্যালয় করা হবে,ধলার মোড়ে পার্ক তৈরি করা হবে, সিএন্ডবি ঘাটকে আধুনিক নৌবন্দর করা হবে,চরাঞ্চলের মানুষের কর্মসংস্থান সৃস্টির লক্ষে মিল্কভিটার আদলে দুগ্ধ প্রক্রিয়ার ব্যবস্থা করা হবে,১৭৫ কোটি টাকা ব্যয়ে কুমার নদী খনন করা হবে,আইটি ভিলেজ করা হবে,শহরের যানজোট দুর করনে নিলটুলির উপর পাশ দিয়ে আর একটি রাস্তা করা হবে। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ফরিদপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর প্রেসিডেন্ট মো. জাহাঙ্গীর মিয়া, অনুষ্ঠান পরিচলনা করেন ফরিদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ফরিদপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর পরিচালক খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবর। এসময় উপস্থিত ছিলেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক সরদার শরাফত আলী,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মুস্তাফিজুর রহমান,এফবিসিসিআই এর সাবেক প্রেসিডেন্ট মীর নাসির হোসেন, মেয়র শেখ মাহতাব আলী মেথু, এ্যাড.সুবল সাহা। অনুষ্ঠানে শহরের বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ সভায় ফরিদপুরের উন্নয়নে জন্য তাদের মতামত প্রদান করেন।