প্রয়ান দিবসের আলোচনায় বক্তারা বিদ্রোহী কবির গানে এদেশের মানুষরা মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ সাম্যবাদ, অসা¤প্রদায়িকতার কবি কাজী নজরুল ইসলাম। তার কবিতা ও গান চর্চা করে এবং চিন্তা চেতনাকে সাথে নিয়ে আমাদের এগিয়ে আসতে হবে। সুস্থ সাংস্কৃতিক চর্চার মধ্যে দিয়ে যারা নজরুল ও রবীন্দ্র সংগীত চর্চা করে তাদেরকে স্থান করে দিতে হবে। নজরুলের বিদ্রোহী গানের উদ্বুদ্ধ হয়ে এদেশের সাধারন জনগন মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিল। বীরত্বের সাথে এদেশকে স্বাধীন করেছে। কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৩৯তম প্রায়ান দিবস উদযাপনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে নজরুল সংগীত শিল্পী পরিষদের আয়োজনে সংগঠনের সভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সদর ৫ আসনের সাংসদ জেবুন্নেছা আফরোজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক জিয়াউল হক, ব্রজমোহন কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক স.ম ইমানুল হাকিম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেয় সংগঠনের সাধারন সম্পাদক জহুরুল হাসান সোহেল। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিশু সংগঠক জীবন কৃষ্ণ দে, মুকুল দাস, কাজল ঘোষ, নজরুল ইসলাম চুন্নু, মুরাদ আহমেদ সহ সমাজের বিভিন্ন স্তরের সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মীরা। আলোচনা অনুষ্ঠানের শেষে সংগঠনের শিল্পীদের পরিবেশনায় কবির কবিতা আবৃত্তি, গান ও নৃত্য পরিবেশিত হয়।