প্রেমে ব্যর্থ যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বানারীপাড়ায় আত্মহত্যার চেষ্টাকারী প্রেমিক সজিব (২০) এর জ্ঞান ফিরেছে। আত্মহত্যার চেষ্টার ৮দিন পর গতকাল মঙ্গলবার তার জ্ঞান ফেরার পাশাপাশি কথাও বলেছেন।
এর আগে গত ২৭ জুলাই পরিবার থেকে প্রেম মেনে না নেয়ায় প্রেমিক সজিব ও প্রেমিকা কলি আক্তার (১৫) একই সময় গলায় ফাঁস দেয়। ঐদিন কলির মৃত্যু হলেও জ্ঞান হারা নির্বাক অবস্থায় শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসাধিন ছিলো প্রেমিক সজিব।
সজিব বানারীপাড়া উপজেলার খড়পাড়া গ্রামের আফজাল হোসেন’র ছেলে।
এদিকে গতকাল জ্ঞান ফেরার পর থেকে প্রেমিকার কথা এবং স্মৃতি ভেবে বিভোর হয়ে আছে প্রেমিক সজিব। তিনি জানান, ৬ বছর যাবত একই উপজেলার উত্তরকুল গ্রামের ট্রলার চালক হানিফ এর মেয়ে কলির সাথে তার প্রেম চলে আসছিলো। এর মধ্যে গত এক বছর পূর্বে দু’জনের মধ্যে বিরোধ হলে সজিব নিজের হাত-পা বেধে পানিতে ঝাপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এসময় সজিবের পরিবার কলির সাথে প্রেমের বিষয়টি জানতে পারে।
অপরদিকে সম্প্রতি উভয় পরিবারে বিষয়টি জানাজানি হলে সজিবের পরিবারের সদস্যরা বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে কলির বাড়িতে যায়। কিন্তু তার বাবা মা এ সম্পর্ক মেনে নিতে পারেনি। যে কারনে গত ২৭ জুলাইল কলি একং সজিব অভিমান করে নিজ নিজ বাড়িতে একই সময় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এর মধ্যে কলি মারা গেলেও তার প্রেমিক সজিবকে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
এদিকে কলির আত্মহত্যার ঘটনায় তার বাবা স্থানীয় থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় সজিব এবং তার পরিবারকে আসামী করেছে বলেও জানিয়েছে সজিব।