প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন যারা

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ মহান একুশের প্রথম প্রহরে বরিশাল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পনের মধ্যে দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন বরিশালের বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, প্রশাসন, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন দপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। রাত ১২টার আগেই বাঁধ ভাঙ্গা জোয়ারের মতো ফুল হাতে শ্রদ্ধা নিবেদনের উদ্দেশ্যে শহীদ মিনারের উদ্দেশ্যে অগ্রসর হন সর্বস্তরের জনগন। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে শুরু করে কাকলির মোড় পর্যন্ত সদর রোডে দলবদ্ধ এবং সাড়িবদ্ধভাবে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে আসা বিভিন্ন স্তরের মানুষের দীর্ঘ লাইন পড়ে যায়। দীর্ঘ অপেক্ষার পরে মাহেন্দ্রক্ষন আসতেই একে একে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান সকলে।
এর পূর্বে শহীদ মিনার এবং আশ পাশের এলাকা জুড়ে গ্রহন করা হয় বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। বহুতল ভবনের ছাদে পুলিশি নিরাপত্তার পাশাপাশি সদর রোডের একাংশে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয় পুলিশ। পুলিশ কমিশনার এসএম রুহুল আমিন বিকেলে শহীদ মিনার সংলগ্ন আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার পরিদর্শন করেন।
এর মধ্যে একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সর্ব প্রথম পুষ্পমাল্য অর্পনের মাধ্যমে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বরিশাল-২ আসনের এমপি এ্যাড. তালুকদার মো. ইউনুস, সদর আসনের এমপি জেবুন্নেছা আফরোজ এবং বরিশাল-৩ আসনের এমপি এ্যাড. শেখ মো. টিপু সুলতান। এর পরে পুষ্পমাল্য অর্পন করেন বরিশাল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মইদুল ইসলাম, বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. আহসান হাবিব কামাল, বরিশাল জেলা ও মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বরিশাল রেঞ্জ এর ডিআইজি শেখ মো. মারুফ হাসান, বিভাগীয় কমিশনারের পক্ষে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার এসএম রুহুল আমিন, বরিশাল জেলা প্রশাসক ড. গাজী মো. সাইফুজ্জামান, জেলা পুলিশ সুপার এসএম আক্তারুজ্জামান, বরিশাল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক জিয়াউল হক পুষ্পস্তবক অর্পন করেন।
এছাড়াও পরবর্তীতে পুষ্পার্ঘ অর্পন করেন আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন এর অধিনায়ক, ফায়ার সার্ভিস, আরআরএফ পুলিশ সুপার, আনসার ভিডিপি, বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগের পক্ষে সিনিয়র সহ-সভাপতি সাহান আরা বেগম, সাধারন সম্পাদক তালুকদার মো. ইউনুস-এমপি, দৈনিক আজকের পরিবর্তন সম্পাদক কাজী মিরাজ মাহমুদ, দৈনিক কীর্তনখোলার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সালেহ টিটু, কীর্তনখোলার যুগ্ম সম্পাদক কাজী আফরোজা, শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাব, বরিশাল রিপোটার্স ইউনিটি, রয়েল সিটি হাসপাতালের পক্ষে কাজী আফরোজা সহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারী, বরিশাল সরকারি বিএম কলেজ, শিক্ষক সমিতি, জাতীয় পার্টি, মহানগর শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, সরকারি হাতেম আলী কলেজ, সরকারি বরিশাল কলেজ সরকারি মহিলা কলেজ, জেলা ছাত্রদল, ছাত্র ইউনিয়ন সহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং পেশাজীবী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন।
এদিকে মহান একুশে ফেব্রুয়ারী কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ অর্পনকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে দেয়া হয় শহীদ মিনার এবং এর আশপাশের এলাকা। কোন প্রকার নাশকতা এবং অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আশপাশের বহুতল ভবনের ছাদে পুলিশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। এমন নিরাপত্তা ব্যবস্থা ইতিপূর্বে দেখা যায়নি। তাছাড়া শ্রদ্ধা জানাতে আসা মানুষের দুর্ভোগ লাঘবের জন্য জিলা স্কুল মোড় থেকে কাকলির মোড় পর্যন্ত যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয় পুলিশ। এর ফলে সু-শৃঙ্খলভাবেই প্রথম প্রহরে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পেরেছেন সাধারন মানুষ। এবারের মতো অতীতে একুশের প্রথম প্রহরে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য এতো বিপুল সংখ্যক মানুষের আগমন ঘটেনি। সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদ এবারেও সুশৃঙ্খলভাবে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে আসা বিভিন্ন সংগঠনের নাম মাইকে প্রচার করেন। বিপুল সংখ্যক পুলিশের পাশাপাশি আনসার, স্কাউট সদস্যরা নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন। কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন হাজারো মানুষ।