প্রতারক প্রেমিকসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ প্রেমিকাকে স্ত্রী ও গর্ভজাত সন্তানকে প্রাপ্ত মর্যাদা না দেয়ার অভিযোগে মামলা করা হয়েছে। প্রতারক প্রেমিকসহ পরিবারের ৩ জনকে অভিযুক্ত করে এ মামলা করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার প্রেমিকা রাশিদা বেগম বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করে। আদালতের বিচারক শেখ আবু তাহের মামলাটি আগৈলঝাড়া থানার ওসিকে এজাহার হিসেবে গ্রহণের নির্দেশ দেন। একই সাথে প্রতারক প্রেমিককে আটকের পর ডিএনএ পরীক্ষার নির্দেশ দেন। অভিযুক্তরা হলো- আগৈলঝাড়া চাদত্রিশিরার বাসিন্দা মোঃ শামিম সরদার, তার পিতা লতিফ সরদার ও মাতা বেবী বেগম। মামলা সূত্রে জানাগেছে, রাশিদা বেগম শামিমের ছোট বোনের বান্ধবি। সেই সূত্রে শামিমের সাথে তার পরিচয় ঘটে। পরবর্তীতে শামিমের সাথে রাশিদার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ২০১৪ সালের ১৫ মে বিয়ের প্রলোভনে রাশিদার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করে শামিম। পরে আরও একাধিকবার সম্পর্কের ফলে রাশিদা অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এ ঘটনা শামিমের পরিবারকে জানালে তারা রাশিদাকে মেনে না নিয়ে গর্ভের সন্তান নষ্ট ও তাকে হত্যার চেষ্টা করে। গত ৮ মার্চ রাশিদার পুত্র সন্তান হয়। এ ঘটনা এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানানোর পরও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে এ মামলা করা হয়।