পুলিশ সাংবাদিক একে অপরের পরিপূরক- পুলিশ কমিশনার

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ মহানগর পুলিশের নবাগত কমিশনার লুৎফর রহমান মন্ডল বলেছেন, পুলিশের সফলতাই মূল কথা নয়, জনগন শান্তিতে থাকলে সেটাই হবে আমাদের বড় পাওয়া। আর এই জনগনকে শান্তি দেয়া পুলিশের একার পক্ষে সম্ভব নয়। এজন্য সাংবাদিকদের সহযোগিতা প্রয়োজন। কেননা পুলিশ, প্রেস এবং পাবলিক সমন্বয় করে কাজ করলে সমাজ থেকে সকল অসংগতি দূর করা সম্ভব।
বরিশাল প্রেসক্লাবে আয়োজিত মতবিনিময় ও পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএমপি কমিশনার লুৎফর রহমান মন্ডল এসব কথা বলেন। আলোচনা সভার পূর্বে নবাগত পুলিশ কমিশনার লুৎফর রহমান মন্ডলকে ফুল দিয়ে অভিনন্দন জানান ক্লাবের নেতৃবৃন্দ এবং সদস্যরা।
সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় প্রেসক্লাবের তৃতীয় তলায় হল রুমে ক্লাবের সভাপতি কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় ঐতিহ্যবাহী বরিশাল প্রেসক্লাবে আসতে পেরে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বিএমপি কমিশনার লুৎফর রহমান মন্ডল বলেন, পুলিশ এবং সাংবাদিক একে অপরের বন্ধু। তাই সবাইকে এক সাথে মিলে মিশে কাজ করতে হবে। সাংবাদিকদের সহযোগিতায় মহানগরীকে একটি সু-শৃঙ্খল সুন্দর নগরীতে রূপান্তর করার চেষ্টা করবো। সাধারণ মানুষের মাঝে পুলিশ নিয়ে যে ভুল ধারনা রয়েছে তা পাল্টে দিয়ে জনগনের বন্ধু হয়েই কাজ করতে চাই।
তিনি বলেন, মানুষের ভুল ধরিয়ে দেয়াটাই সাংবাদিকের নৈতিক দায়িত্ব। পুলিশের বিরুদ্ধে লিখলে এটা দোষের কিছু নয়। বরং লেখনির মাধ্যমে আমরা আমাদের দোষ এবং ভুল-ত্রুটিগুলো বুঝতে পারি। কোন কোন ক্ষেত্রে এর যথাযথ ব্যবস্থাও নিতে পারি।
সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, শুধুমাত্র পুলিশের দোষের কথাটাই নয়, পুলিশের ভালোর দিকটাও তুলে ধরতে হবে। এতে করে একজন পুলিশ ভালো কাজ করতে উৎসাহ পাবে।
কর্মক্ষেত্রে নানা সমস্যার কথা তুলে ধরে পুলিশ কমিশনার লুৎফর রহমান মন্ডল বলেন, আমাদের একার পক্ষে আইন শৃঙ্খলা বা সার্বিক বিষয়ের সমস্যা সমাধান সম্ভব নয়। এজন্য সরকারের প্রতিটি দপ্তরের কর্মকর্তাদের এগিয়ে আসতে হবে। যে যেই অবস্থানে রয়েছেন, তাকে সেই অবস্থানে থেকে তার দায়িত্ব পালন করলে সবাই মিলে একটি সুন্দর মহানগরী উপহার দেয়া সম্ভব। আর সকলে মিলে কাজ করলেই যেকোন কাজে সফলতা আসবে।
সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের নবাগত উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) মো. হাবিবুর রহমান খান, উপ-পুলিশ কমিশনার (সাউথ) গোলাম আব্দুর রউফ খান-পিপিএম (বার), উপ-পুলিশ কমিশনার ট্রাফিক আবু রায়হান মোহাম্মদ সালেহ।
অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন বরিশাল প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এ্যাড. এস.এম ইকবাল, বর্তমান সাধারন সম্পাদক পুলক চ্যাটার্জী, সহ-সভাপতি এমএম আমজাদ হোসাইন, সহ-সাধারণ সম্পাদক কাজী মিরাজ মাহমুদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন দৈনিক ইনডিপেনডেন্ট এর বরিশাল প্রধান মুরাদ আহম্মেদ।
এছাড়া উপস্থিত ছিলেন- বরিশাল প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক লিটন বাশার, বর্তমান সহ-সভাপতি গোপাল সরকার, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক শাহিনা আজমিন, কাজল ঘোষ প্রমুখ।