পুলিশ মার্শাল আর্ট ক্লাবের উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ উদ্বোধন করা হয়েছে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ মার্শাল আর্ট ক্লাবের। গতকাল শনিবার বিকাল ৫টায় নগরীর পুলিশ লাইন মাঠে বিএমপি কমিশনার শৈবাল কান্তি চৌধুরী এবং চিত্র নায়ক মাসুদ পারভেজ রুবেল ক্লাবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।
উদ্বোধন পরবর্তী এক সাক্ষাতকারে পুলিশ কমিশনার শৈবাল কান্তি চৌধুরী জানান, ছোট বেলা থেকেই আমি মার্শাল আর্ট’র প্রতি দুর্বল ছিলাম। কিন্তু শিখতে পারিনি। তাই আমি নিজ উদ্যোগে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ সদস্যদের জন্য মার্শাল আর্ট ক্লাব চালু করেছেন।
কমিশনার আরো বলেন, একজন পুলিশ সদস্যর কাছে সব সময় অস্ত্র থাকে না। তাই একজন পুলিশ সদস্য’র আত্মরক্ষায় মার্শাল আর্টের বিকল্প নেই। বিশেষ করে নারীদের এজন্য মার্শাল আর্ট শেখাটা খুবই জরুরী। কেননা অপরাধিরা নারীদের সর্বদা দুর্বল ভেবে তাদের উপর নগ্ন হামলা এবং যৌন নিপিড়নের চেষ্টা করছে। একজন নারীর মার্শাল আর্ট জানা থাকলে অপরাধিরা তা আর পারবে না।
বিএমপি কমিশনার বলেন, শুধু মাত্র অস্ত্র নয়, মার্শাল আর্ট জানা থাকলে বড় ধরনের ক্ষতি বা জখম ছাড়াই কৌশলে আসামীদের ধরা সম্ভব। আমি চাই বরিশাল মেট্রো পলিটন পুলিশের প্রতিটি সদস্য মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষন গ্রহন করুক। যাতে দেশের সকল পুলিশ বাহিনী জানে বরিশালের পুলিশ সদস্যরা শুধু দেশ রক্ষায় হাতিয়ার নিয়েই নয়, তারা মার্শাল আর্ট শিখে হাতের-পা দিয়ে অপরাধী ধরা এবং নিজেদের রক্ষা করতে পারে।
দেশের বিখ্যাত কারাতে প্রশিক্ষক এবং চিত্র নায়ক মাসুদ পারভেজ রুবেল বলেন, আমার বাড়ি বরিশালে। তাছাড়া বরিশালের পুলিশ কমিশনার শৈবাল কান্তি চৌধুরী আমার বন্ধু। শুধু মাত্র শৈবাল কান্তির জন্য আমি বরিশাল মেট্রো পলিটন পুলিশ সদস্যদের কারাতে প্রশিক্ষন দিতে বরিশালে এসেছে। আমি আশা করি কারাতে প্রশিক্ষন গ্রহন করে বরিশাল পুলিশ সদস্যরা আরো চৌকশ এবং নিজেদের আত্মরক্ষা করতে সক্ষম হবে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন- বরিশাল মেট্রো পলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) সোয়েব আহম্মেদ, উপ-পুলিশ কমিশনার গোলাম আব্দুর রউফ, জিল্লুর রহমান প্রমুখ।
উল্লেখ্য, গতকাল শনিবার থেকেই মেট্রোপলিটন পুলিশ মার্শাল আর্ট ক্লাবে প্রশিক্ষন কার্যক্রম শুরু হয়। নারী ও পুরুষ মিলিয়ে ৩০ জন সদস্য নিয়ে এই প্রশিক্ষক কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আগামী এর সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে। প্রতি এক কি দুই মাস পর পর চিত্র নায়ক মাসুদ পারভেজ রুবেল বরিশালে এসে প্রশিক্ষন দিবেন। এছাড়া প্রতি ১০/১৫ দিন পর পর তার শিষ্যদের পাঠিয়ে প্রশিক্ষন দেবেন। একই প্রতি কোর্সের জন্য প্রশিক্ষন সম্পন্ন করতে নূন্যতম এক বছর সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন প্রশিক্ষক মাসুদ পারভেজ রুবেল।