পুলিশের নগর বিশেষ শাখায় চুরির চেষ্টায় আটক-১

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ মহানগর পুলিশের নগর বিশেষ শাখা (সিটিএসবি) কার্যালয়ে তথ্য মজুদ করা ল্যাপটপসহ অন্যান্য মালামাল চুরি করতে গিয়ে আটক হয়েছে এক যুবক। এসময় সন্দেহজনক ভাবে আরো দু’জনকে আটক করা হলেও জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। গত সোমবার রাত ২টার দিকে নগরীর বান্দ রোডে পুলিশ কমিশনার কার্যালয় সংলগ্ন কার্যালয়টিতে এই ঘটনা ঘটে। আটকৃত যুবক হুমায়ুন কবির টিয়া ওরফে বড়ো মেয়া ত্রিশ গোডাউন চরের বাড়ি এলাকার আসলাম মিয়ার ছেলে। গতকাল মঙ্গলবার তাকে চুরি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

কোতয়ালী মডেল থানার ওসি শাখাওয়াত হোসেন জানান, রাত ২টার দিকে কমিশনার কার্যালয়ের পাশে সিটিএসবি কার্যালয়ে চুরির উদ্দেশ্যে প্রবেশ করে পার্শ্ববর্তী এলাকার হুমায়ুন কবির ওরফে টিয়া। ত্রিশ গোডাউন সড়ক থেকে সিমানা প্রাচির ডিঙ্গিয়ে ভেতরে প্রবেশ করে সে। পরে সিটিএসবি’র নগরী থেকে সংগ্রহ করার পর তথ্য মজুদ রাখা ল্যাপটপ চুরির চেষ্টা করে। রাতে কার্যালয়ে দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্য এবং নৈশ প্রহরীরা বিষয়টি টের পেলে তাকে ধাওয়া করে। এসময় পালাতে গেলে কার্যালয়ের ভেতর থেকে তাকে আটক করা হয়।
এদিকে তাকে আটকের পর পুলিশ সদস্যরা কার্যালয়ের পাশে ত্রিশ গোডাউন সড়কে অভিযান চালায়। এসময় সেখান থেকে আরো দু’জনকে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে আটক করা হয়। পরে তাদের কোতয়ালী মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়।
পুলিশ জানিয়েছে, আটককৃতদের মধ্যে দু’জন নির্দোষ। তাদের সন্দেহজনক ভাবে আটক করা হলেও পরে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। ঐ দু’জন শেবাচিম হাসপাতালে রোগী নিয়ে আসে এবং রাতে চা পান করতে বাইরে বের হয়।
তিনি আরো জানান, টিয়া পেশাদার চোর। সে মালামাল চুরির উদ্দেশ্যেই সিটিএসবি কার্যালয়ে প্রবেশ করে। এর বাইরে অন্য কিছুই নয়। তাছাড়া যে ল্যাপটপটি চুরি করতে চেয়েছিলো সেখানে তেমন কোন গুরুত্বপূর্ন তথ্য ছিলো না বলে দাবী করেন তিনি।