পবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের শাস্তি প্রত্যাহারে দাবি ছাত্রলীগের

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) সাত ছাত্রকে সাময়িক বহিস্কারসহ ৬৭ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেয়ার প্রতিবাদে লাগাতার আন্দোলনের ঘোষনা দিয়েছে ছাত্রলীগ। রোববার র‌্যাগ দেয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ ও মারামারিসহ তিনটি পৃথক ঘটনায় ছাত্র শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে ওই শাস্তির ঘোষনা দেয় কতৃপক্ষ। এর প্রতিবাদে গতকাল সোমবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক সজীব মোল্লার নেতৃত্বে ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল করে। বিক্ষোভ মিছিল শেষে জয়বাংলা চত্বরে সমাবেশ করে তারা। সেখানে বক্তব্য দেয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক সজিব মোল্লা, প্রচার সম্পাদক রায়হান আহমেদ রিমন, কেরামত আলী হল সভাপতি বেল্লাল হোসেন রাজীব, সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে মাহমুদুল হাসান সুমেল, কিরন আহমেদ প্রমুখ। সমাবেশে শাস্তি প্রত্যাহার করা না পর্যন্ত লাগাতার কর্মসুচী ঘোষনার হুমকি দিয়েছে বক্তারা।
গত ২ ফেব্রুয়ারি বিভিন্ন অনুষদের ৩য়, ৫ম ও ৭ম সেমিস্টারের ছাত্র-ছাত্রীরা ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদেরকে র‌্যাগ দেয়া ও ২৩ ফেব্রুয়ারি শেরেবাংলা আবাসিক হল-২ এর ১০৬ নম্বর কক্ষে ছাত্রকে র‌্যাগ দেয়া এবং ৫-৬ এপ্রিল এম কেরামত আলী হল ও শেরেবাংলা আবাসিক হলসহ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মারামারি ও ভাংচুরের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়। এর প্রেক্ষিতে হলেন কম্পিউটার সায়েন্স এ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) অনুষদের মো¯তাফিজুর রহমান শাকিল(৬ষ্ঠ সেমি) ও তাজবির আহাদ তাজ(৪র্থ সেমি), মৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের ছাত্র সালাউদ্দিন রুমি রাতুল(৬ষ্ঠ সেমি), কৃষি অনুষদের মো. আল-আমিন(৪র্থ সেমি) ও আজাদ হোসেন সজল(৪র্থ সেমি), বিএএম অনুষদের মাজেদুল হক খান(৪র্থ সেমি) ও ছাত্র সোহাগ হোসেনকে (২য় সেমি) সাময়িক বহিস্কার করা হয়।এছাড়া কৃষি অনুষদের ২৪, বিএএম অনুষদের ২১, সিএসই অনুষদের ৫ , মৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের ৮, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদের ২, নিউট্রিশন এন্ড ফুড সায়েন্স অনুষদের ৪ এবং পোস্ট গ্রাজুয়েট স্টাডিজ অনুষদের ৩ শিক্ষার্থীসহ মোট ৬৭ জনের মধ্যে ২ জনকে ৩ হাজার টাকা অর্থদন্ড ও হল থেকে স্থায়ী বহিস্কার, মুচলেকা রাখা, ৩ জনকে চলমান জুলাই-ডিসেম্বর সেমিস্টার থেকে বহিস্কার, ১ জনকে ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড ও হল থেকে বহিস্কার ও মুচলেকা দেয়া, ১ জনকে ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড, হল থেকে ৬ মাসের জন্য বহিস্কার, ১৫ জনকে ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড, মুচলেকা, সতর্কীকরণ, ২ জনকে ৩ হাজার টাকা অর্থদন্ড, সতর্কীকরণ করা হয়েছে। একই সঙ্গে এদের প্রত্যেকের অভিভাবককে চিঠি দেয়া হয়েছে। ৩ জন প্রাক্তন ছাত্রকে ছাত্রত্ব না থাকায় হলে বসবাসের সুযোগ না দেয়া এবং সার্টিফিকেট কেন বাতিল করা হবে না মর্মে কারন দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে।