নির্মাতা মাহামুদুল হাসান টিপু’র জেলেপল্লী ভিত্তিক টেলিছবি ‘ঢেউ’ সুটিং সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ কাজলী নামের মেয়েটির জন্ম সাগর পাড়ের ছোট্ট একটি জেলে পল্লিতে। সাগরের নোনা জলে তাঁর বেড়ে ওঠা, জীবন-যাপন; তবু সাগরের সাথেই তাঁর আজন্ম বৈরিতা। জেলে পল্লির বাদশা আর হারু দুই বন্ধু সাগরে মাছ ধরে। দু’জনেরই জীবনের একমাত্র স্বপ্ন কাজলীকে নিয়ে ঘর বাঁধার। কাজলীর দেয়া শর্ত অনুযায়ী মুহুর্তের সিদ্ধান্তে বংশপরম্পরায় আকড়ে থাকা পেশা ছেড়ে দিয়ে ভয়াবহ সংকটে পরে যায় বাদশা আর হারু। উপার্জনের পথ হারিয়ে রিতিমত বিপর্যয়ের মুখে পরে তাঁরা। আর তখনি গল্পের ভিতর থেকে উঁকি দেয় সম্পূর্ণ ভিন্ন আর একটি গল্প। এমনি এক সাগর পাড়ের জেলেপল্লী ভিত্তিক বহুমাত্রিক গল্পের টেলিছবি “ঢেউ”। সাগরকন্যা কুয়াকাটা এবং ভান্ডারিয়ার তেলিখালিতে চিত্রায়িত টেলিছবি “ঢেউ” এর নির্মাতা মাহামুদুল হাসান টিপু গল্প সম্পর্কে বলতে গিয়ে বলেন, “অতি পরিচিত একটি গল্পকে আমরা ভিন্নমাত্রায় উপস্থাপন করার চেষ্টা করেছি মাত্র। চেষ্টা করেছি হাসি ঠাট্টার মধ্য দিয়ে গল্পের কাঠামোয় সমাজের কিছু ভয়াবহ ক্ষত তুলে ধরতে”। নির্মাতা মাহামুদুল হাসান টিপু’র গল্প অবলম্বনে টেলিছবির “ঢেউ” এর চিত্রনাট্য করেছেন যৌথভাবে মাহামুদুল হাসান টিপু ও মুহম্মদ আবু রাজীন। প্রযোজনা করেছেন মিরাজুল ইসলাম। চিত্রগ্রহণে ছিলেন দানিয়েল ড্যানি। এই টেলিছবির মাধ্যমে দীর্ঘদিন পর একসাথে ফ্রেম বন্দি হয়েছেন মোশাররফ করিম ও মারজুক রাসেল। তাদের অভিনীত চরিত্রের নাম যথাক্রমে বাদশা এবং হারু। কাজলী চরিত্রটি রুপদান করেছেন লাক্স তারকা মৌসুমী হামিদ। এছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন এ কে আযাদ সেতু, সুকান্ত মূখার্জী বাবু, রেবা ঘোষ, মিন্টু কর, তন্ময় সাহা সহ আরও প্রায় দেড় শতাধিক অভিনেতা-অভিনেত্রী। পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরে টেলিছবিটি কোন একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার হবে বলে নির্মাতা সূত্রে জানা গেছে।