নগরীতে জেলা পুলিশের অভিযোগ বক্স স্থাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ থানায় গিয়ে কিংবা ফোন করে আর তথ্য ও অভিযোগ নয়। এখন থেকে থানায় না গিয়েই অভিযোগ দিতে পারবে বরিশালবাসী। এজন্য মহানগরী সহ বরিশালের ১০টি উপজেলায় দেয়া হচ্ছে তথ্য ও অভিযোগ বক্স। প্রতিদিন নিজ উদ্যোগে অভিযোগ বক্স খুলে জনগনের দেয়া তথ্য ও অভিযোগপত্র সংগ্রহ করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নিবেন তারা। অপরাধ প্রবনতা কমিয়ে আনতে বরিশাল রেঞ্জ পুলিশের নবনিযুক্ত ডিআইজি শফিকুল ইসলাম এর নির্দেশনা অনুযায়ী অভিযোগ বক্স লাগাচ্ছে জেলা পুলিশ। ইতিমধ্যে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে বরিশাল সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ডিআইজি নিজ হাতে দুটি তথ্য ও অভিযোগ বক্স লাগিয়ে কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন। মহানগরীতে পর্যায়ক্রমে আরো ৫টি এবং বাকি ৯ উপজেলায় ১৩টি অভিযোগ বক্স লাগাবেন তারা। তবে বরিশাল ছাড়াও গোটা রেঞ্জে স্থাপন করা হচ্ছে ১৬৪টি তথ্য ও অভিযোগ বক্স। বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সদর দপ্তর) আবুল বাশার এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে অনিয়ম এবং দুর্নীতি রয়েছে। যার ভুক্তিভোগি হতে হয় সাধারন মানুষকে। তাছাড়া এলাকা এবং পাড়া মহল্লায় মাদক ব্যবসা এবং চাঁদাবাজী সহ বিভিন্ন অপরাধ সংঘটিত হয়। এসব অপরাধের বিষয়ে সাধারন মানুষের জানাশোনা থাকা সত্ত্বেও হয়রানির ভয়ে তারা অভিযোগ করতে থানায় কিংবা বড় কোন কর্মকর্তার কাছে যেতে সাহস পাচ্ছে না। এসব বিষয় বিবেচনা করেই বরিশাল মহানগরী সহ জেলা পর্যায়ে তথ্য ও অভিযোগ বক্স খোলা হয়েছে। সাধারন মানুষ চাইলে যেকোন সময় রাস্তার পাশে রক্ষিত সকল ধরনের অভিযোগ লিখিত আকারে অভিযোগ বক্সে ফেলতে পারবেন। প্রতিদিন পুলিশ সদস্যরা বাক্স গুলো খুলে অভিযোগপত্রগুলো সংগ্রহ করবেন।
তিনি জানান, যে দপ্তরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হবে, সেই দপ্তরের প্রধান বরাবর আবেদন করতে হবে। পরে পুলিশ দপ্তর থেকে অভিযোগ’র বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হবে। অভিযোগ যাচাই বাচাই এবং তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
জেলা পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, মহানগরী এবং জেলা পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ন ও জনবহুল এলাকা গুলোতে অভিযোগ বক্স লাগানো হচ্ছে। এর মধ্যে মহানগরী এলাকায় ৭টি অভিযোগ বক্স থাকবে। বরিশাল নগরীর আদালত চত্ত্বর, অশ্বিনী কুমার টাউন হল, কেন্দ্রীয় নথুল্লাবাদ ও রূপাতলী বাস টার্মিনালে দুটি, শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একটি সহ গুরুত্বপূর্ন স্থানে ওই ৭টি বক্স স্থাপন করা হচ্ছে। এর মধ্যে গতকাল মঙ্গলবার বিকালে নগরীর সদর রোডে অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সামনে এবং জেলা ও দায়রা জজ আদালত চত্ত্বরে দুটি অভিযোগ বক্স লাগানো কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ডিআইজি শফিকুল ইসলাম। এসময় অন্যান্যদের মাঝে বরিশাল রেঞ্জ এর অতিরিক্ত ডিআইজি আকরাম হোসেন, ডিআইজি কার্যালয়ের পুলিশ সুপার মো. হাবিবুর রহমান, বরিশাল জেলার ভারপ্রাপ্ত ডিআইজি হুমায়ুন কবির, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোল্লা আজাদ, বাকেরগঞ্জ সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মতিজুল ইসলাম ও সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সদর দপ্তর) আবুল বাশার সহ জেলা ও রেঞ্জ পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সদর দপ্তর) আবুল বাশার জানিয়েছেন, নগরী ছাড়াও উপজেলা পর্যায়ে আরো ১৩টি অভিযোগ বক্স থাকবে। এর মধ্যে বাকেরগঞ্জ, গৌরনদী ও উজিরপুর উপজেলায় ২টি করে মোট ৬টি এবং বাকি আগৈলঝাড়া, বানারীপাড়া, বাবুগঞ্জ, হিজলা, মুলাদী ও মেহেন্দিগঞ্জে ১টি করে অভিযোগ বক্স পর্যায়ক্রমে লাগানো হবে। বরিশাল জেলা ছাড়াও রেঞ্জের আওতাধীন বাকি ৫টি জেলা আরো ১৪৪টি অভিযোগ বক্স স্থাপন করা হবে। জিআইজি’র নির্দেশনা অনুযায়ী স্ব স্ব জেলা পুলিশ অভিযোগ বক্স স্থাপন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করবে।