ধর্মীয় অনুশাসনের ভুল ব্যাখ্যা গ্রহণ না করতে নারীদের প্রতি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিবের আহবান

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ নারী সমাজকে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ফ্রিল্যান্সিয়ের মাধ্যমে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করার আহবান জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার। গতকার শনিবার সকাল ১০টায় নগরীর হাউজ মিলনায়তনে বর্তমান সরকারের লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভলপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় সনদপত্র প্রদান অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন বর্তমান সমাজে ধর্মকে অপব্যবহার করে নারীদেরকে ঘরের মধ্যে বসিয়ে রাখা হয়েছে। কিন্তু উন্নত রাষ্ট্রের দিকে তাকালে দেখা যায় নারীরা আজ ঘরে বসে নেই। প্রতিটি ক্ষেত্রেই তাদের কঠোর পরিশ্রম ও অসামান্য ভূমিকার ফলে দেশকে উন্নতির শিখরে পৌছে দিচ্ছে। এ সময় তিনি ধর্মীয় অনুশাসনের ভুল ব্যাখ্যা গ্রহণ না করার আহবান জানান। এ সময় জেলার ৩টি উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের ১২৩ জন শিক্ষার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ করা হয়। হাকস লিমিটেডের চেয়ারম্যান মোঃ শাহে আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার মোঃ গাউস, জেলা প্রশাসক মোঃ শহীদুল আলম, বাবুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ বাকাহীদ হোসেন। বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তঅ সাইয়েদ এজেড মোরশেদ আলী, তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোঃ মাহবুব হোসেন, হাকস লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাজীব চৌধুরী, বিভাগীয় তথ্য অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক জাকির হোসেন প্রমুখ। লার্নিং এন্ড আর্নিং প্রকল্পের আওতায় জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলার মাধবপাশা ও দেহেরগতি ইউনিয়ন, বানারীপাড়ার উদয়কাঠি ও ইলহার ইউনিয়ন, উজিরপুর শোলক ও ওটরা ইউনিয়নের শিক্ষার্থীদের তথ্য ও প্রযুক্তির উপর ১৫ দিনের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। এছাড়াও প্রকল্পের আওতায় ৫দিন ব্যাপী এ্যাডভান্স লার্নিং ও ৩ দিন ব্যাপী পূর্ববর্তী পর্যালোচনা বিষয়ক প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।