দেশ গড়ার প্রত্যয় হবে ৭১ এর চেতনায়-র‌্যাব মহাপরিচালক

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ শান্তি, শৃঙ্খলা আর সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করে আমাদের বহুদূরে এগিয়ে যেতে হবে। স্বপ্নকে রুপান্তর করতে হবে বাস্তবতায়। দেশ গড়ার প্রত্যয় হবে ৭১ এর চেতনায় বলে মন্তব্য করেছেন র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ। র‌্যাব-৮’র ১০ম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর রূপাতলীতে নিজস্ব দপ্তরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করে র‌্যাবের মহাপরিচালক বলেন, এ জন্য দেশের সকল আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।
মহাপরিচালক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দক্ষ ও যোগ্য নেতৃত্বে দেশ আজ মধ্য আয়ের দেশে রূপান্তরিত হয়েছে। উন্নত বিশ্বের জন্য তিনি যে স্বপ্ন আমাদের দেখাচ্ছেন তা বাস্তবায়নের জন্য স্থিতিশীল অবস্থা বজায় রাখতে বার বার সবাইকে তাগাদা দিচ্ছেন। আমাদের সে উন্নত দেশের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে দেশের বিরাজমান শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে হবে। মানুষের প্রেরণাকে সাথে নিয়ে ত্রাস-সন্ত্রাস দমনে ঝাপিয়ে পড়ে দেশকে রক্ষা করতে হবে।
র‌্যাব-৮ দক্ষিণের জানালায় প্রশান্তির প্রবাহ নিশ্চিত করেছে। সুন্দরবনের গহীণে শক্ত ঘাটি করে অবস্থান করা জল ও বন দস্যু দমনে অষ্টম ব্যাটালিয়নের তৎপরতার প্রশংসা করেছেন তিনি।
তিনি বলেন, র‌্যাব-৮ প্রতিষ্ঠার পর সুন্দরবনের গহীণ অরণ্যে অভিযান চালিয়ে জলদস্যু ও বনদস্যু মুক্ত হয়েছে। সুন্দরবন আমাদের জাতীয় সম্পদ। আন্তর্জাতিকভাবে এ বনের অবদানের স্বীকৃতি রয়েছে। সেখান থেকে বনদস্যু ও জলদস্যুদের নির্মূল করতে অভিযান অব্যাহত থাকবে।
তিনি র‌্যাব-৮ এর গত এক বছরে সফলতার তথ্য তুলে ধরে বলেন, ১৪১টি আগ্নেয়াস্ত্র, ৭২৯ রাউন্ড গুলী, ২৬৬টি হাতবোমা উদ্ধার করেছে। আর গ্রেপ্তার করেছে ৫৮জন শীর্ষ সন্ত্রাসি। এ সময়ে ২ কোটি সাতাসি লাখ টাকা মূল্যের মাদক দ্রব্য উদ্ধারসহ এর সাথে জড়িত ৩৯৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। জেলেদের রক্ষায় সুন্দরবনে ১৫টি সফল অভিযান চালিয়ে ১৪ জলদস্যুকে ঘায়েল করেছে, বিপুল অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করেছে ১৮ দস্যুকে। উদ্ধার করেছে ১৮ জেলে সহ বিপুল অস্ত্র।
এর পরে র‌্যাব-৮ সদর দপ্তরে কেক কেটে ১০ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আড়ম্বরপূর্ন অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বেনজির আহমেদ। এ সময় বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র আহসান হাবিব কামাল, বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি মো. হুমায়ন কবির, মহানগর পুলিশ কমিশনার লুৎফর রহমান মন্ডল, র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল জিয়াউল আহসান, র‌্যাব-৮ কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল ফরিদুল আলম ও বরিশালের জেলা প্রশাসক ড. গাজী মো. সাইফুজ্জামান সদর উপজেলার চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু সহ সুধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে সকালে র‌্যাব-৮ সদর দপ্তরে র‌্যাবের পতাকা উত্তোলন, মার্চপাষ্ট, কুচকাওয়াজ ও ব্যাটালিয়ান সদস্যদের নিয়ে দরবার অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে র‌্যাব-৮’র অধীনে থাকা সকল সিপিসি কমান্ডার সহ বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। রাতে ব্যাটালিয়নের সদর দপ্তরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
২০০৬ সালের ৫ সেপ্টেম্বর দক্ষিণাঞ্চলের ১১ জেলা নিয়ে র‌্যাব-৮ এর কার্যক্রম শুরু হয়। নগরীর রুপাতলীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের পরিত্যক্ত ও ভাড়া ভবনে কার্যক্রম শুরু করা র‌্যাব-৮ সদর দপ্তরের নির্মাণ কাজ প্রায় শেষের পথে রয়েছে। সুন্দরবনকে দস্যুমুক্তসহ আওতাধীন ১১ জেলার অভ্যন্তরে নাশকতা, জঙ্গি সংগঠনের গতিবিধি ও কার্যকলাপ নজরদারীতে ব্যস্ত থাকায় এ বছর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর দিনে কোন অনুষ্ঠান হয়নি। ব্যস্ততা কাটিয়ে মঙ্গলবার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠান হয়েছে। আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে জ্যেষ্ঠ নাসিম উল আলম, সাংবাদিক মুরাদ আহম্মেদ, লিটন বাশার, কাজী মিরাজ, সাইফুর রহমান মিরন, ফেরদৌস সোহাগ, রাহাত খান, শাহিনা আজমিন, শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ নিজাম উদ্দিন ফারুক, খ্যাতনামা স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ জিকে চক্রবর্তী, ডাঃ অসিত ভূষন দাস, ডাঃ জাকির হোসেন, সুরভী লঞ্চের স্বত্ত্বাধিকারী রিয়াজ উল কবির প্রমুখ।