দেশবাসীসহ রোহিঙ্গা মুসলিমদের রক্ষায় দোয়া-মোনাজাতের মাধ্যমে ঈদ উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ দেশবাসীসহ মিয়ানমারে নির্মম নির্যাতন’র শিকার রোহিঙ্গা মুসলিমদের রক্ষায় দোয়া-মোনাজাতের মাধ্যমে বরিশালে ঈদ-উল আযহার নামাজ আদায় হয়েছে। বরিশালের হেমায়েত উদ্দিন কেন্দ্রীয় ঈদ গা ময়দান, চরমোনাই পীরের দরবার শরীফ ময়দান, গুঠিয়ার বায়তুল আমানসহ জেলা ও নগরীর মসজিদ এবং ময়দানে শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত ঈদের জামাতের বিশেষ দোয়া মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা করা হয়। বরিশালের হেমায়েত উদ্দিন কেন্দ্রীয় ঈদ গা ময়দানে নামাজ আদায় করেন বরিশাল সিটি মেয়র আহসান হাবীব কামাল, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি নাজমুল আহসান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মইদুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট জাকির হোসেন, বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওয়াহেদুজ্জামান, উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিন) আ. রউফ খান, অভ্যন্তরীন যাত্রীবাহী নৌযান চলাচলকারী সংস্থা’র (যাপ) চেয়ারম্যান মাহবুবউদ্দিন আহম্মেদ (বীরবিক্রম), বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল, সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাড. আফজালুল করিম, সাধারন সম্পাদক এ্যাড একেএম জাহাঙ্গিরসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নেতৃবৃন্দ ও প্রশাসনের কর্মকর্তা। প্রধান জামাতের ইমামতি করেন স্টীমারঘাট জামে মসজিদের ছানী ইমাম শিহাব উদ্দিন আহমেদ্। ঈদের জামাত শেষে জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান শুভেচ্ছা বিনিময়কালে সকলকে ত্যাগের মহিমায় নিজের ও সমাজের উন্নতি এবং সোনার বাংলা বিনির্মাণে একযোগে এগিয়ে আসার আহবান করেন।
অপরদিকে ঈদ উল আযহায় মহানগরবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিতের লক্ষে কাজ করেছে মেট্রোপলিটন পুলিশ। দিন রাত নিরবিচ্ছিন্ন নিরাপত্তা দিয়েছেন নগর পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা থেকে শুরু করে সদস্যরা। এর পাশাপাশি নিরাপত্তা নিশ্চিতের লক্ষে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা দিয়েছে র‌্যাব-৮ ও আর্মড পুলিশ সদস্যরা। ঈদের পূর্বে পশুর হাট, ঈদের দিন বিভিন্ন ঈদের জামাত এবং ঈদ গাহ ময়দান ছাড়াও নগরী ভ্রমন স্পট ও গুরুত্বপূর্ণ এলাকা র‌্যাব, পুলিশের নিরাপত্তার চাদরে ঘেরা ছিলো। এর ফলে ঈদের আগে থেকে গতকাল পর্যন্ত দু-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া নগরীর কোথাও কোন বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।