দাবী আদায়ে নার্সিং শিক্ষার্থীরা ফের আন্দোলনে

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ দাবী আদায়ের লক্ষ্যে আবারো আন্দোলনে নেমেছে বরিশাল নার্সিং কলেজ শিক্ষার্থীরা। এবার তারা পাঁচ দফা দাবী বাস্তবায়নে ক্লাশ বর্জন করে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন শুরু করেছে। গতকাল সোমবার সকাল ৮টা থেকে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ সংলগ্ন নার্সিং কলেজের একাডেমিক ভবনের সামনে এই কর্মসূচি পালন শুরু করেছে।
কর্মসূচির অংশ হিসেবে গতকাল সকাল ৮টায় ক্যাম্পাসের মধ্যে বিক্ষোভ মিছিল করেছে নার্সিং কলেজের বিএসসি এবং ডিপ্লোমা নার্সিং শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী বরিশাল স্টুডেন্ট নার্সেস ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন এর ডাকে ক্লাশ বর্জন করে একাডেমিক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন শুরু হয়।
এদিকে আন্দোলনের শুরুতে শিক্ষার্থীদের উত্থাপিত পাঁচ দফা দাবীর মধ্যে মধ্যে মৌখিক ভাবে একটি দাবী মেনে নেয় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। দাবীটি হলো বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ বি.এস.সি ইন নার্সিং কোর্সে অধ্যয়নরত ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ক্যারি-অন সিস্টেম চালুকরণ সহ ফাইনাল ও সাপ্লিমেন্টরী পরীক্ষার ফলাফল দ্রুত প্রকাশের নিশ্চয়তা প্রদান।
বিষয়টি নিশ্চিত করে বরিশাল স্টুডেন্ট নার্সেস ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশনের তথ্য ও যোগাযোগ সম্পাদক মিলন কুমার দাস জানান, জাতীয় বিশ্ব বিদ্যালয়ের ডিন তাদের ওই দাবী মৌখিক ভাবে মেনে নিলেও এখন পর্যন্ত লিখিত ভাবে বিষয়টি নিশ্চিত করেননি।
শিক্ষার্থীদের উত্থাপিত বাকি চারটি দাবী না মানা পর্যন্ত এ আন্দোলন অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মুখপাত্র মিলন। তাদের দাবীগুলো হলো-বর্তমান বেতন কাঠামো এবং বর্তমান বাজারের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ইন্টার্নভাতা ১৬ হাজার টাকায় উন্নীত করা, প্রত্যেকটি নার্সিং কলেজে অবকাঠামো উন্নয়ন করা, স্বতন্ত্র সেবা অনুষদের ব্যবস্থা করা ও প্রত্যেক নার্সিং কলেজর অধ্যয়নরত ছাত্রদের জন্য মানসম্মত আবাসনের সুব্যবস্থা করা।
এদিকে এ আন্দোলনকে কেন্দ্র করে ক্যাম্পাসে পুলিশ অবস্থান করছে। কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশি নিরাপত্তার ব্যবস্থা জোরদার করেছে বলে জানিয়েছেন কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাখাওয়াত হোসেন।
অপরদিকে বরিশাল স্টুডেন্ট নার্সেস ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন এর সভাপতি মোতাহার জানান, কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বানে তারা আন্দোলন শুরু করেছে। প্রাথমিক ভাবে ক্লাশ বর্জন করে প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত একাডেমিক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে এই কর্মসূচি পালন করা হবে। দাবী না মানার পাশাপাশি কেন্দ্রে থেকে কোন নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত তাদের আন্দোলন কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।