দরগাহ বাড়ির খাল থেকে দিনমজুরের লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীর ২৩ নং ওয়ার্ডস্থ দরগাহ বাড়ি এলাকায় খাল থেকে নিখোঁজ দিনমজুরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার বিকেলে ওই এলাকার পাঁচ পীরের মসজিদ সংলগ্ন খাল থেকে দিন মজুর লাল চাঁন খা’র (২৪) লাশ উদ্ধার করা হয়। সে নগরীর ধানগবেষনা রোডের দারোগা বাড়ীর মৃত আমজাদ খা’র ছেলে। গত বুধবার সন্ধ্যার পর থেকে তার কোন খোঁজ ছিল না। অজ্ঞাত পরিচয়ে পুলিশ লাল চাঁন’র লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছিল। রাতে তার পরিবার লাশ সনাক্ত করেছে।
তার ভাই মরিয়ম বেগম জানায়, গত বুধবার সন্ধ্যায় বাসা থেকে বের হয় লাল চাঁন। এরপর থেকে তার কোন খোঁজ ছিল না। ঘরের সবাই ধারনা করেছিল, নলছিটি’র মানপাশা শ্বশুড় বাড়ীতে গিয়েছে। সন্ধ্যায় অজ্ঞাত লাশের খবর  পেয়ে শ্বশুড় বাড়ীতে খোঁজ নেয়া হয়। সেখানে যায়নি খবর পেয়ে অজ্ঞাত লাশ দেখতে এসে সন্তান’র পরিচয় নিশ্চিত করেন।
লাল চাঁন’র সাথে কারো শত্রুতা নেই কিংবা সে মৃগী রোগী নয়। তাই কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে, সেই বিষয়ে কোন ধারনা নেই তাদের। মৃত দেহ উদ্ধারকারী কোতয়ালী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মশিউর রহমান জানান, স্থানীয়দের মাধ্যকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে খালের পানিতে যুবকের মৃত দেহ ভাসতে দেখেন। পরে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেন।
তিনি বলেন, উদ্ধার হওয়া লাশের পড়নে একটি গামছা ছাড়া আর কোন পোশাক ছিলো না। এমনকি কোন আঘাতের চিহ্নও পাওয়া যায়নি। শরীর বিকৃত হয়নি। মৃত দেহটি স্বাভাবিকই ছিলো। তবে নাক ও মুখ থেকে রক্ত বের হয়েছিলো। অবশ্য পানিতে ডুবে থাকলে লাশের নাক-মুখ থেকে রক্ত বের হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ধারনা করা হচ্ছে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে। লাশের আকৃতি দেখে তার মৃত্যু শুক্রবারই হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। তার পরেও মৃত দেহের ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারন জানা যাবে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।