তীব্র চ্যালেঞ্জের মুখে সাবেক এমপি ফরহাদ; নেতাকর্মীদের তোপের মুখে মেহেন্দীগঞ্জ পৌর বিএনপি’র পূর্বের কমিটি পুনর্বহাল !

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ পৌর বিএনপি’র পূর্ণাঙ্গ কমিটি বিলুপ্ত করে আহ্বায়ক কমিটি গঠনের ৩ দিনের ব্যবধানে পূর্বের কমিটি পুনর্বহাল করা হয়েছে বলে গুঞ্জন রটেছে। উত্তর জেলা বিএনপি’র সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ মেহেন্দিগঞ্জ পৌর ও এর অন্তর্ভূক্ত ৯টি ওয়ার্ড বিএনপি ও সহযোগি সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীদের চাপের মুখে গতকাল রাত সোয়া ৮টায় পূর্বের পূর্ণাঙ্গ কমিটি পুনর্বহালের ঘোষণা দেন। একই সাথে সভাপতিকে বিভিন্ন বিষয়ে ভুল বোঝানোর অভিযোগে উপজেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান মুক্তাকে নেতাকর্মীরা দল থেকে বহিষ্কারের দাবী জানালে তাও মেনে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন বলেও গুঞ্জন ছড়িয়েছে। তবে এ গুঞ্জনের তীব্র বিরোধিতার পাশাপাশি আহ্বায়ক কমিটি বহাল রাখার কথা জানিয়েছেন উত্তর জেলা বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক সাংসদ মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ।
মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র নেতা-কর্মীরা জানায়, শাহাবুদ্দিন হিমুকে সভাপতি ও জিয়াউদ্দিন সুজনকে সাধারণ সম্পাদক করে ২ বছর আগে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট মেহেন্দীগঞ্জ পৌর বিএনপি’র কমিটি গঠন করা হয়। পূর্বের ঐ কমিটি গত বৃহস্পতিবার একক সিদ্ধান্তে বিলুপ্ত করেন উত্তর জেলা বিএনপি’র সভাপতি ফরহাদ। ওই দিনই শাহাবুদ্দিন হিমুকে আহ্বায়ক এবং দিলু চৌধুরীকে সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক করে নিজস্ব অনুসারীদের নিয়ে ৫১ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করেন ফরহাদ। এতে ক্ষুব্ধ মেহেন্দিগঞ্জ পৌর ও ৯ ওয়ার্ড বিএনপি এবং সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা গতকাল সন্ধ্যায় নগরীর কালীবাড়ি রোডে ফরহাদের বাস ভবনে গিয়ে দল থেকে গণপদত্যাগের হুমকি দেন। তারা পূর্বের আহ্বায়ক কমিটি পুনবর্হাল এবং ওই কমিটি ভেঙ্গে দেয়ার জন্য অভিযুক্ত উপজেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান মুক্তাকেও দল থেকে বহিষ্কারের দাবী তোলেন। এ নিয়ে ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের সাথে দীর্ঘ ২ ঘন্টার বৈঠক করেন সভাপতি ফরহাদ। বৈঠকে একাধিকবার হৈ-চৈ চেঁচামেচি করে ওঠেন মেহেন্দিগঞ্জের শতাধিক নেতাকর্মীরা। অবস্থা বেগতিক দেখে রাত সোয়া ৮টায় পূর্বের পূর্ণাঙ্গ কমিটি পুনর্বহালের ঘোষনা এবং মুক্তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন ফরহাদ। পৌর কমিটি পুনর্বহাল ছাড়াও সাম্প্রতিক সময়ে ফরহাদের একক সিদ্ধান্তে গঠন করা হিজলা উপজেলা এবং ধুলখোলা ও মেমানিয়া ইউনিয়ন কমিটির কার্যক্রম গতকাল কেন্দ্র থেকে ঐ কমিটিও স্থগিতের নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে হিজলা উপজেলা বিএনপি’র বেশ কয়েকজন নেতা নিশ্চিত করেছেন। ফলে দুটি কমিটি নিয়েই তীব্র চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন সাবেক এমপি ফরহাদ।
এ বিষয়ে উত্তর জেলা বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক এমপি মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ’র সাথে আলাপকালে তিনি আজকের পরিবর্তনকে জানান, নেতা-কর্মীদের দাবী দাওয়া নিয়ে মিটিং হয়েছে এটা সত্যি। সেখানে উপজেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদকের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ ও আহ্বায়ক কিমিট বিলুপ্ত করে পূর্বের কমিটি বহাল রাখার প্রস্তাব তোলে নেতা-কর্মীরা। তাদের দাবী মেনে নেয়ার আশ্বাস দেয়া হয়েছে। কিন্তু এখনো নতুন আহ্বায়ক কমিটিই বহাল রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, কমিটির গঠন বা ভাঙ্গনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেয় কেন্দ্র থেকে। আমি কেন্দ্রের বাইরে কিছুই করতে পারিনা। তিনি বলেন, বিষয়টি সমাধানের জন্য আমি ঢাকায় যাচ্ছি। সেখান থেকে ফিরে কমিটির বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেয়া হবে। এছাড়া হিজলা বিএনপি’র নব গঠিত কমিটি বিলুপ্তির বিষয়ে যে গুঞ্জন ছড়ানো হচ্ছে তা সম্পূর্ন মিথ্যা বলেও দাবী করেছেন এই নেতা। তিনি বলেন, হিজলার উল্লেখিত নতুন কমিটি এখনো বহাল রয়েছে।