ডায়রিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ নগরীতে বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ। যার কারণে সদর হাসপাতালে রেড়েছে রোগী। নগরীর সদর হাসপাতাল ঘুরে দেখা গেছে গত ১ সপ্তাহে রোগী ভর্তির সংখ্যা দ্বিগুন হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। যার ফলে রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে চিকিৎসক ও নার্সরা। হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ড সূত্রে জানাগেছে, গত ১৪এপ্রিল থেকে গতকাল রাত পর্যন্ত ২২৬ জনের অধিক ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন। এদিকে ওই ওয়ার্ডটিতে বেডের সংখ্যা কম থাকায় রোগীদের ফ্লোরে অবস্থান করে সেবা নিতে হচ্ছে। যার ফলে সৃষ্টি হচ্ছে চরম দুর্ভোগ। এছাড়াও হাসপাতালে ভর্তি হওয়া নারী ও পুরুষদের মধ্যে ২৫ বছর থেকে ৫০ উর্ধ্বে বয়সী রোগীদের সংখ্যা বেশি। বিদ্যুৎ সংকট ও পর্যাপ্ত জয়গা না থাকায় রোগীর সাথে আসা স্বজনরা পড়েছে চরম বিপাকে। এদিকে ডায়রিয়া চিকিৎসা নিতে আসা এক রোগী জানান, রোগীর চাপ অতিরিক্ত থাকায় ঠিকমত চিকিৎসা সেবা পাচ্ছে না। সাথে সাথে আবহাওয়া প্রতিকূলে থাকায় বিদ্যুতের বিকল্প ব্যবস্থা না থাকায় ভয়াবহ পরিবেশের সৃষ্টি হচ্ছে। ডায়রিয়া ওয়ার্ডে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ মোঃ মোস্তফা নেওয়াজ জানান, ঋতু পরিবর্তন ও রাস্তার খোলা খাবার গ্রহনের ফলে এই সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। রাস্তার ভ্রাম্যমান শরবত বিক্রেতাদের কাছ থেকে অস্বাস্থ্যকর শরবত খাওয়ার ফলে এই রোগের অন্যতম কারন হয়ে দাড়িয়েছে বলে মনে করা হয়। এছাড়া এই রোগটি হল পানিবাহিত রোগ, যার ফলে সর্বদা পানি ফুটিয়ে পান করা হলে এবং রাস্তা ঘাটের খোলা খাবার খাওয়া বন্ধ হলে এই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। এছাড়াও তিনি জানান, পর্যাপ্ত বেডের ব্যবস্থা না থাকার ফলে রোগীদের চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হচ্ছে। অতিরিক্ত চাপ ও সেবীকার সংখ্যা কম থাকায় এই সমস্যা হচ্ছে।