ট্রান্সফর্মার বিকল হয়ে বিদ্যুৎ বিপর্যয়

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ এবার পাওয়ার স্টেশনের ট্রান্স ফর্মার বিকল হয়ে বিদ্যুৎ বিপর্যায়ের সৃষ্টি হয়েছে। এ কারনে গতকাল দিনভর বরিশাল নগরী সহ সংশ্লিষ্ট জেলা এবং উপজেলায় বিদ্যুৎ বিভ্রাটের সৃষ্টি হয়। সেই সাথে ছিলো প্রবল লোডশেডিং। যে কারনে প্রচন্ড গরমের মধ্যে সীমাহিন ভোগান্তিতে কাটাতে হয়েছে গ্রাহকদের। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কল কারখানার উৎপাদন কার্যক্রম।
জানাগেছে, গতকাল শনিবার সকাল থেকেই সূর্যের তাপ ছিলো প্রচন্ড। যে কারনে মাথা ধরা রোদে সাধারন খেটে খাওয়া মানুষের পক্ষে গৃহের বাহির হওয়াটা দুস্কর হয়ে দাড়ায়। কিন্তু ঘরে কিংবা অফিস পাড়ায় থেকেও মানুষকে অসহ্য গরম সহ্য করতে হয়েছে। কেননা সকাল থেকেই বিদ্যুৎ এর লুকোচুরির কারনে ঘোরেনি ঘর কিংবা অফিস পাড়ায় ফ্যানের পাখা। যে কারনে প্রচন্ড গরম এবং বিদ্যুৎ এর লুকোচুরিতে নাজেহাল পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়।
এদিকে নগরবাসী জানান, রোদের তাপ বৃদ্ধি পেলেই বেড়ে যায় কথিত লোডশেডিং। একবার বিদ্যুৎ চলে গেলে দেড়/দুই ঘন্টায় আসার নাম নেই। আবার আসলেও সর্বোচ্চ আধা ঘন্টার মধ্যে আবার নিরুদ্দেশ হয়ে যায় বিদ্যুৎ। কয়েক দিন যাবত এমন পরিস্থিতি বিরাজমান থাকলেও গতকালের পরিস্থিতি ছিলো আরো ভয়াবহ। কেননা নগরীর বিভিন্ন ফিডারে যখন তখন সাব ট্রান্সফর্মার বিকল হলেও গতকাল খোঁজ পাওয়ার স্টেশনের ট্রান্সফর্মারটিই বিকল হয়ে পড়ে। যে কারনে ঐ ট্রান্সফর্মারটি সাড়িয়ে তুলতে সময় লেগে যায় সারা দিন।
গ্রাহকদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, পাওয়ার স্টেশনের ট্রান্স ফর্মারের কারনে বেলা ১২টার দিকে প্রথম দফায় বিদ্যুৎ চলে যায়। এর পর দুপুর আড়াইটার দিকে পূনরায় বিদ্যুৎ সংযোগ চালু হয়। কিন্তু তাও বেশিক্ষন স্থায়ীত্ব পায়নি। বিকাল সোয়া ৩টার দিকে পূনরায় বিদ্যুৎ চলে যায়। সেই বিদ্যুৎ সংযোগ পূণরায় ফিরে পেতে সময় লেগে যায় বিকাল প্রায় সাড়ে ৫টা। ট্রান্সফর্মার মেরামত করে বিদ্যুৎ সংযোগ দিলেও এর প্রায় এক ঘন্টার মাথায় আবার পড়তে হয় লোড শেডিং এর কবলে। এ কারনে সন্ধ্যা সোয়া ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত নগরীর একাংশকে থাকতে হয় বিদ্যুৎ বিহীন অন্ধকারে। যে কারনে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি ভোগান্তিতে পড়তে হয় প্রতিটি মানুষকে। ঘন ঘন বিদ্যুৎ এর লোডশেডিং এবং পাশাপাশি যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে জন জীবনে নেমে এসেছে চরম বিপর্যায়।