ঝালকাঠিতে পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে কাউন্সিলরদের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন

ঝালকাঠি প্রতিবেদক॥ ঝালকাঠি পৌরসভার মেয়র আফজাল হোসেনের করা সংবাদ সম্মেলনের বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেছে ১০ কাউন্সিলর।্ আজ  মঙ্গলবার দুপুরে শহরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে দশ কাউন্সিলরের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রেজাউল করিম জাকির। লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়েছে, স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয় কর্তৃক সাময়িক বরখাস্ত হওয়া ঝালকাঠি পৌরসভার মেয়র আফজাল হোসেন নিজের দুর্নীতি আড়াল করে গত ১১ অক্টোবর পৌরসভার সভাকক্ষে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন সংবাদ সম্মেলন করেছেন । সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়েছে, মেয়র আফজাল যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়ে ও কোন প্রকার পরিমাপ এবং মূল্য নির্ধারণ না করে  বিপুল পরিমানের সরকারি গাছ বিক্রি করে দিয়েছেন। এছাড়াও যোগাযোগ মন্ত্রনালয়ের সরকারি প্রজ্ঞাপন উপেক্ষা করে ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সা প্রতি ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা উৎকোচ নিয়ে প্রায় চার শত লাইসেন্স প্রদান করেছেন তিনি।এছাড়াও ঈদুল ফিতর, ঈদুল আজহা ও দূর্গা পূজার পূর্বে সরকার দুঃস্থ-অসহায় পরিবারের সহায়তার জন্য ভিজিএফ কার্ড বিতরনের অনিয়ম, কারিগরি বিধিবিধান তোয়াক্কা না করে যত্রতত্র বৈদ্যুতিক পোল-খুটি অপসারন করা, এবং ইউজিআইআইপি-২ প্রকল্পের আওতায় কোটি কোটি টাকার উন্নয়ণ কাজে টেন্ডারবাজী ও পার্সেন্টিজ আদায়েরও অভিযোগ করা হয়েছে এ সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্যে।
০১ অক্টোবর স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ে ঝালকাঠি পৌর সভার দশ কাউন্সিলরের নানা অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঝালকাঠি পৌর মেয়র আফজাল হোসেনকে সাময়িক ভাবে বরখাস্তের আদেশ দেন। পরে মেয়র আফজাল হোসেন উচ্চ আদালত থেকে ওই আদেশের ওপর ৬ মাসের জন্য স্থগিতাদেশ পান।
অপরদিকে দশ কাউন্সিলর উচ্চ আদালতের ওই আদেশের ওপর আপীল করে। আগামী ১৯ অক্টোবর  উচ্চ আদালতে ওই আপীলের ওপর শুনানীর দিন ধার্য রায়েছে।
প্রসঙ্গত, গত এক বছর ধরে দুই কাউন্সিলরকে নিয়ে পৌর মেয়র বনাম দশ কাউন্সিলর পাল্টাপাল্টি অবস্থান ও সংবাদ সম্মেলনসহ নানা কর্মসূচি চালিয়ে আসছেন ।