জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এবং সড়ক যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি’র বরিশাল আগমন উপলক্ষে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে নগরীর বরিশাল ক্লাবের অমৃত লাল দে মিলনায়তনে এই বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপি।

বর্ধিত সভায় আসন্ন বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহকে দলীয় মনোনয়নের জন্য সুপারিশ করার জন্য প্রধান অতিথি আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ-এমপি’র কাছে দাবী জানান জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। তাদের দাবীর পরিপ্রেক্ষিতে আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ-এমপি বলেন, মনোনয়ন সম্পূর্ণ নেত্রীর ব্যাপার। তিনিই ঠিক করবেন কে মনোনয়ন পাবে আর কে পাবে না। তৃনমুলে পর্যায়ে জনপ্রিয়তা বিবেচনা করেই দলীয় মনোনয়ন দিবেন নেত্রী। তবে আমার বিশ্বাস নেত্রী দলের ভালোর জন্য যে সিদ্ধান্ত দিবেন তা বাস্তায়নে সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ কাজ করবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন বলে সভায় অংশ নেয়া বেশ কয়েকটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এর পূর্বে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় উপস্থিত এবং বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস-এমপি, বরিশাল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মইদুল ইসলাম, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এ্যাড. একেএম জাহাঙ্গীর, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লা, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ আসিনুর রহমান, গাজী নইমুল হোসেন লিটু, মনিরুল ইসলাম খান মনির প্রমুখ। এছাড়াও বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগে আওতাধীন ১০ উপজেলার দলীয় চেয়ারম্যান, ভাইচ চেয়ারম্যান, ৬ পৌরসভার দলীয় মেয়র এবং বিসিসি’র ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং সাধারন সম্পাদকগন উপস্থিত ছিলেন।

বর্ধিত সভায় আগামী ২৭ জুলাই আওয়ামী লীগের সদস্য সংগ্রহ এবং নবায়ন কার্যক্রম উদ্বোধনের লক্ষে আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এবং সড়ক যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের-এমপি’র বরিশালে আগমন সফল, সার্থক এবং শান্তিপূর্ণ করার লক্ষে নানামুখি পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে। বিশেষ করে বরিশাল বিমানবন্দর থেকে শুরু করে সভাস্থল পরিজর্ন তার নিরাপত্তা এবং সু-শৃঙ্খল পরিবেশ বজায় রাখতে উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। তাছাড়া এয়ারপোর্টে সর্বপ্রথম জেলা আওয়ামী লীগ তাকে ফুল দিয়ে বরণ এবং পরবর্তীতে নগরীতে আসার পরে সভাস্থলে মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তাকে সর্বপ্রথম ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাছাড়া আবহাওয়া পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে অনুষ্ঠানের দুটি ভ্যানু নির্ধারন করে রাখা হয়েছে। আবহাওয়া পরিস্থিতি ভালো থাকলে নগর ভবনের সামনে মুঞ্চে নয়তো অশ্বিনী কুমার টাউন হলে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। তবে পরিস্থিতি বুঝে পরবর্তীতে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে বলেও সভায় জানানো হয়।