জাপার সকল পদ থেকে অধ্যাপক হাবুলকে অব্যাহতি

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রাথমিক সদস্যসহ সকল পদ থেকে অব্যাহতি পেয়েছেন কেন্দ্রীয় কমিটির বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক মহসিন উল ইসলাম হাবুল। পার্টির সিদ্ধান্তের বিরোধীতা করায় তাকে অব্যাহতি দিয়েছেন চেয়ারম্যান হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ। তার স্বাক্ষরিত অব্যাহতি পত্র গতকাল বৃহস্পতিবার নগরীতে এসে পৌঁছেছে।
এদিকে অব্যাহতির বিষয়টি ষড়যন্ত্র বলে অভিযোগ করেছেন অধ্যাপক মহসিন উল ইসলাম হাবুল। তিনি বলেন, আমি এখন পর্যন্ত অব্যাহতি পত্র পাইনি। তবে বিষয়টি আমি শুনেছি।
অধ্যাপক হাবুল অভিযোগ করে বলেন, একটি চক্র হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ এবং তাকে নিয়ে অনেক আগ থেকে ষড়যন্ত্র করছে। ওই চক্র চেয়ারম্যানকে ভুল বুঝিয়েছে। চেয়ারম্যান এবং তাকে হেয় প্রতিপন্ন করতে কাজটি করেছে ওই চক্র।
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এবং সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ স্বাক্ষরিত অব্যাহতি পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, বরিশাল নগরীর বৌদ্ধপাড়া’র বাসিন্দা অধ্যাপক মহাসিন উল ইসলাম হাবুলকে জাতীয় পার্টির প্রাথমিক সদস্যসহ সকল পদ ও দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হলো। সাংগঠনিক গঠনতন্ত্রের ৩৯ ধারা মোতাবেক এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। এই সিদ্ধান্ত অবিলম্বে কার্যকর হবে।
হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদের প্রেস এন্ড পলিটিক্যাল সেক্রেটারী সুনীল শুভ রায় স্বাক্ষরিত অপর আদেশে বলা হয়েছে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এবং বরিশাল জেলা জাপা’র সাবেক সভাপতি অধ্যাপক মহসিন উল ইসলাম হাবুলকে পার্টির পদ সহ সকল দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হলো। তবে কোন আদেশেই অব্যাহতির সু-নির্দিষ্ট কোন কারণ উল্লেখ করা হয়নি।
অব্যাহতির বিষয়ে অধ্যাপক হাবুল বলেন, পার্টি চাইলে আমাকে অব্যাহতি দিতে পারে। তবে সে জন্য সুনির্দিষ্ট কারণ থাকতে হবে।
এছাড়াও আমি নিজে থেকে অব্যাহতি চাইলে সে ক্ষেত্রে অব্যাহতি দিতে হবে। নিয়ম অনুযায়ী বহিস্কার করার সিদ্ধান্ত নিতে শোকজ এবং আলোচনা করতে হবে। কিন্তু আমাকে অব্যাহতি দেয়ার কোন নিয়ম মানা হয়নি।
জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু বলেন, বরিশাল জাতীয় পার্টির কমিটি গঠনের লক্ষ্যে কেন্দ্র থেকে জেলা এবং মহানগরে দুটি সম্মেলন কমিটি গঠন করা হয়েছে। তখন থেকে মহসিন উল ইসলাম হাবুল কেন্দ্রের নির্দেশনা উপেক্ষা করে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। এমনকি মহানগর সম্মেলনের সময় তিনি দলের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছে। সব মিলিয়ে পার্টির শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে ইতোপূর্বে মহসিন উল ইসলাম হাবুলকে দু’বার কেন্দ্র থেকে শোকজ করা হয়েছিল। তারই ধারাবাহিকতায় তাকে দল থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।