চরফ্যাশনে পুত্রের পিটুনিতে বৃদ্ধ বাবা আহত

চরফ্যাশনে পুত্রের পিটুনিতে বৃদ্ধ বাবা আহত
চরফ্যাশন প্রতিবেদক ॥ চরফ্যাশনের চর তোফাজ্জল গ্রামে পুত্রের পিটুনিতে আহত বাবা ফজলে করিম মাতব্বর তাঁর কুলাঙ্গার পুত্র মো. হোসেন’র  বিচারের দাবী নিয়ে দারে দারে ধর্না দিচ্ছেন। ঘর থেকে বাবা মাকে বের করে ঘরের দখল নেয়ার জন্য মারধর করা হয়েছে বলে আক্রান্ত বৃদ্ধ বাবা ফজলে করিম মাতব্বর অভিযোগ করেছেন। এ ঘটনায় চরফ্যাশন থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করা হলেও কোন সুফল তো হয়ই নি বরং ক্ষুব্ধ হয়ে বাবাকে হুমকি দিচ্ছে ওই পুত্র।
জানা যায়, গত ১৬ অক্টোবর সকালে বৃদ্ধ বাবা ফজলে করিম মাতব্বরকে মারধর করে পুত্র মো. হোসেন এবং নাতি কাইয়ুম। পুত্র-নাতির পিটুনিতে আহত বৃদ্ধ বাবাকে ওই দিন চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকাল সোমবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি ফিরলে ফের বাবার উপর চড়াও হয়েছে ওই পুত্র-নাতি। মারধরের পর চরফ্যাশন থানায় লিখিত অভিযোগ করায় ক্ষুব্ধ পুত্র ও নাতি তার উপর ফের চড়াও হয়েছেন বলে ফজলে করিম মাতব্বর অভিযোগ করেন। তিনি জানান, ১৬ অক্টোবর মারধর করার পর তিনি বাদী হয়ে পুত্র মো. হোসেন এবং নাতি কাইয়ুমকে বিবাদী করে চরফ্যাশন থানায় অভিযোগ করেন। এই অভিযোগ করায় ক্ষুব্ধ পুত্র-নাতি তার উপর আবারও চড়াও হয়েছেন বলে জানা যায়। স্থানীয় ভাবে জানা যায়, ফজলে করিম মাতব্বর বাড়ি এবং নালে সর্বসাকূল্যে ১ একর ৬০ শতাংশ জমির মালিক ছিলেন। সমুদয় জমি হেবা ঘোষণা পত্রের মাধ্যমে দুই পুত্র মো. ফারুক ও মো. হোসেনকে প্রদান করেছেন। গত বছর আগষ্ট মাসে এই দলিল নেয়ার পর থেকে পুত্র মো. হোসেন এখন ঘরের একচ্ছত্র দখল নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। এ ঘটনায় চরফ্যাশন থানায় মামলা দায়েরের প্রস্ততির কথা জানিয়েছেন অসহায় বাবা ফজলে করিম মাতব্বর।