চতুর্থ শহীদুজ্জামান টিটু স্মৃতি প্রীতি ক্রিকেট খেলায় জিতেছে ফটো ফোরাম

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ মরহুম ফটো সাংবাদিক শহীদুজ্জামান টিটুকে একজন কর্মঠ মাঠের কর্মী ছিল। যে কোন সময়ে প্রয়োজনে পাশে পাওয়া যেত তাকে। সেই টিটুকে আজও স্মরণ রেখে নগরীর সাংবাদিকরা প্রতি বছর যে টুর্নামেন্ট আয়োজন করছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। সহকর্মীর প্রতি এমন ভালোবাসা সাংবাদিকদের আরো আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে।
চতুর্থ শহীদুজ্জামান টিটু স্মৃতি প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচের পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অতিথিরা এসব কথা বলেন।
এর আগে গতকাল ১০ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ৮টায় নগরীর শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়ামে ফটো ফোরাম একাদশ বনাম রিপোর্টার্স একাদশের মধ্যকার প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। সকালে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে রিপোর্টার্স একাদম। ১৮ ওভারে সব ক’টি ইউকেট হারিয়ে ৯১ রান সংগ্রহ করেন তারা।
দ্বিতীয় ইনিংসে ৯২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নামে ফটো ফোরাম একাদশ। তারা নির্ধারিত ওভার শেষ হওয়ার পূর্বে চার উইকেটে জয়ের লক্ষ্যে পৌছে যায়।
পরে শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত স্টেডিয়ামে পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. লুৎফর রহমান মন্ডল। প্রয়াত ফটো সাংবাদিক শহীদুজ্জামান টিটুর বাবা’র সভাপতিত্বে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরিশালের পুলিশ সুপার এস.এম আক্তারুজ্জামান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু, বিসিসি’র ১নং প্যানেল মেয়র ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব কে.এম শহীদুল্লাহ, বরিশাল প্রেসক্লাবের সহ-সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক আজকের পরিবর্তনের প্রকাশক ও সম্পাদক কাজী মিরাজ মাহমুদ, দৈনিক ভোরের অঙ্গিকারের উপদেষ্টা সম্পাদক মাহফুজুর রহমান সুজন, বরিশাল জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য সচিব মো. নূরু। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য তৌহিদুল ইসলাম ছাবিদ প্রমুখ।
আলোচনা পর্বে জেলার পুলিশ সুপার এস.এম আক্তারুজ্জামান প্রয়াত সাংবাদিক শহীদুজ্জামান টিটু’র একমাত্র উত্তরাধিকারী তার ছেলেকে লেখা পড়ার খরচ বাবদ প্রতি মাসে ২ হাজার টাকা করে অর্থ সহায়তা দেয়ার আশ্বাস দেন। এছাড়া পরবর্তীতে শহীদুজ্জামান টিটু স্মৃতি টুর্নামেন্টের প্রতিটি খেলায় দুই দলের জর্সি উপহার দেবেন বলে জানিয়েছেন প্যানেল মেয়র আলহাজ্ব কে.এম শহীদুল্লাহ।