ঘাতক নূপুরের ফাঁসির দাবীতে বানারীপাড়ায় মানববন্ধন স্মারকলিপি প্রদান ও প্রতিবাদ সমাবেশ

বানারীপাড়া প্রতিবেদক ॥ বানারীপাড়ায় গতকাল ঘাতক নূপুরের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন,স্মারকলিপি প্রদান ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বানারীপাড়া প্রেসক্লাব, মানবাধিকার কমিশন,নতুনমুখ সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদ,নতুনমুখ খেলাঘর আসর, উপজেলা মাধ্যমিক ও প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি, উপজেলা রিক্সা শ্রমিক ইউনিয়ন এবং স্পোটিং ক্লাবের উদ্যোগে মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন নতুনমুখ সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন মানিক। প্রতিবাদ সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু বকার সিদ্দিক,বানারীপাড়া প্রেসক্লাব ও বন্দর মডেল স্কুলের সভাপতি রাহাদ সুমন,নতুনমুখ খেলাঘর আসরের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোশারেফ হোসেন, নতুনমুখ সম্পাদক ও মডেল ইউনিয়ন ইনষ্টিটিউশনের সিনিয়র শিক্ষক হরে কৃষ্ণ বিশ্বাস, প্রেসক্লাব সম্পাদক কাওসার হোসেন, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সম্পাদক জাহিদ হোসেন, বানারীপাড়া স্পোটিং ক্লাবের সভাপতি রুহুল আমিন শুভ, উপজেলা রিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান প্রমূখ। বানারীপাড়া ইউনিয়ন ইনষ্টিটিউশনের সামনে থেকে শুরু হয়ে বানারীপাড়া ইতিহাসে দীর্ঘতম মানবন্ধনে বাসষ্টান্ড থেকে বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত সড়কে বানারীপাড়া ইউনিয়ন ইনষ্টিটিউশন, বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বন্দর মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও রেডসান প্রি-ক্যাডেট স্কুলের শিক্ষার্থী এবং শিক্ষক সহ নানা শ্রেণী-পেশার কয়েক হাজার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন।পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শহীদুল ইসলাম ও ওসি জিয়াউল আহসানের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্রমন্থ্রীর কাছে নূপুরের ফাঁসির দাবী জানিয়ে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। দুপুর ১২টায় একই দাবীতে বাসষ্টান্ডে উপজেলা রিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে পৃথক অপর মানবন্ধনে সংগঠনের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউল হক মিন্টুর সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন উপজেলা বিএনপির সাবেক সম্পাদক মীর সহিদুল ইসলাম, ঘাতক নূপুরের ভাসুর পৌর বিএনপির সম্পাদক রিয়াজ মৃধা,উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক কাইউম উদ্দিন ডালিম,ছাত্রদল নেতা আজমল হোসেন প্রমূখ।
এদিকে দুপুর ২টায় বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার এসএম আক্তারুজ্জামান বানারীপাড়ায় নিহত শিশু হাফিজুলের বাসায় এসে তার শোকার্ত বাবা-মাকে সান্তনা দিয়ে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করার ব্যপারে তাদের আশ্বস্ত করেন। এসময় তিনি হাফিজুলের বাবা রিপন শেখকে রিক্সা ক্রয়ের জন্য ১০হাজার টাকা দেওয়ার পাশাপাশি ঘাতক নূপুরকে দ্রুত গ্রেফতার করতে সক্ষম হওয়ায় বানারীপাড়া থানার ওসি জিয়াউল আহসান ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমানকে ৫ হাজার টাকা করে পুরুস্কৃত করেন।
উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার বিকেলে বানারীপাড়া পৌর শহরের ৯ নং ওয়ার্ডে টিএ্যান্ডটি মোড়ে বাড়িওয়ালা বাবলা মৃধার স্ত্রী পাষন্ড বিউটিশিয়ান নূপুর আছাঁড় মেরে হত্যা করেন ভাড়াটিয়া রিক্সা চালকের ৩ বছর ৪ মাস বয়সী ছেলে হাফিজুলকে। গুরুতর আহত অবস্থায় হাফিজুলকে তার বাবা-মা প্রথমে বানারীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে আশংকাজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে হাফিজুলকে ঢাকায় রেফার করলে অর্থাভাবে তাকে আবার বানারীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার পরে রাত সাড়ে ১১টায় কতর্ব্যরত ুিচকিৎসক ডাঃ নাঈম হাসান তাকে মৃত ঘোষনা করেন।