গ্রামীণ ব্যাংকের ২ কর্মকর্তার ২০ বছরের কারাদন্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ গ্রাহকের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুদক’র দায়ের করা মামলায় গ্রামীণ ব্যাংকের ২ কর্মকর্তাকে ২০ বছরের কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। পাশাপাশি ১০ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১২ মাসের দন্ড দেয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার আসামিদের অনুপস্থিতিতে এ দন্ড দেন বিভাগীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক। দন্ড প্রাপ্তরা হলেন রায়পাশা-কড়াপুর গ্রামীন ব্যাংক শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক দেলোয়ার হাসান ও কর্মকর্তা শাহ আলম। আদালতের বেঞ্চ সহকারি হারুন অর রশিদ জানান, ব্যাংকে কর্মরত থাকা অবস্থায় ২০১১ সালে ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত ৫ গ্রাহকের নামে ১ লাখ ৭৭ হাজার টাকা ঋণ উত্তোলন করে। পরে ৬৬ হাজার টাকা জমা দিয়ে বাকি ১ লাখ ১১ হাজার টাকা আত্মসাত করে। এঘটনায় ২০১৩ সালের ২৪ নভেম্বর দুদকের সহকারি পরিচালক ওয়াজেদ আলী গাজী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। ২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি আদালতে চার্জশীট জমা দেন দুদকের উপ সহকারি পরিচালক নাজিম উদ্দিন। এর প্রেক্ষিতে বিচারক মামলাটিতে ২১ জনের মধ্যে ১৭ জনের সাক্ষ্য গ্রহন শেষে উভয়কে ১০ বছর করে কারাদন্ড ৫ লাখ টাকা করে জরিমানা করেন। এছাড়াও টাকা দিতে ব্যর্থ হলে আরও ৬ মাস করে কারাভোগের ও নির্দেশ দেন।