গৌরনদীতে অস্ত্র গুলিসহ যুবলীগের ৪ কর্মী আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ গৌরনদী থেকে আ’লীগ নেতার ছেলে ও ইউপি চেয়ারম্যানের ছোট ভাই ও তার তিন সহযোগিতে গুলি ভর্তি বিদেশী রিভলবারসহ আটক করেছে র‌্যাব। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে আটককৃতরা হলো- মাহিলারা ইউপির বিল্বগ্রামের কালিয়া দমন গুহের সৈলিল গুহ পিন্টু, আগৈলঝাড়ার সুন্দরগাও গ্রামের মৃত শাহাজউদ্দিন হাওলাদারের ছেলে আবু সাইদ মো. মো. নুরুদ্দীন হাওলাদার, গৌরনদীর জঙ্গলপট্টির প্রয়াত কালিপদ নন্দীর ছেলে দিপক নন্দী ও মাহিলারার মো. এসকান্দারের ছেলে মো. শিপন। সৈলিল গুহ পিন্টু মাহিলাড়া ইউপি চেয়ারম্যান উপজেলা যুবলীগের যুগ্মআহ্বায়ক সৈকত গুহ পিকলুর ছোট ভাই। তবে চেয়ারম্যান সৈকত গুহ পিকলুর জানান, গৌরনদী থানার ওসির সাথে তার ছোট ভাইয়ের ভুলবোঝাবুঝি হয়েছিল। ওই ঘটনার জের ধরে ওসির যোগসাজসে র‌্যাব তাকে ধরে অস্ত্র উদ্ধারের নাটক সাঁজিয়েছে বলে পিকলু দাবি করেন। তবে র‌্যাবের ১নং কোম্পানী কমান্ডার ক্যাপ্টেন আবুল বাশার র‌্যাব কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন আবুল বাশার এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, নিজ বাড়ির সামনে একটি ক্লাবে আড্ডারত অবস্থায় অস্ত্র ও গুলিসহ পিন্টু ও তার ৩ সহযোগিকে আটক করা হয়েছে। তিনি জানান, গোপন খবরে তারা জানতে পারেন বিল্লগ্রাম এলাকায় ডিস লাইনের অফিস কক্ষে অস্ত্র ও গুলিসহ সন্ত্রাসীরা অবস্থান করছে। এই খবরে তাদের একটি দল সেখানে অভিযান করে। সেই ঘর থেকে চারজনকে আটক করেছে দল। পরে পিন্টুর পকেট থেকে পাকিস্তানে তৈরি ৬ রাউন্ড গুলি ভর্তি রিভলবার উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত রিভলবারের কোন বৈধ কাগজ পত্র দেখাতে পারেনি। এই ঘটনায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক দ্রব্যে আইনে র‌্যাব বাদী হয়ে মামলা করবে বলে জানিয়েছেন ক্যাপ্টেন আবুল বাশার।