গভীর রাতে আইএইচটি ক্যাম্পাসে এক নেত্রীর তান্ডবে পুলিশ মোতায়েন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ গভীর রাতে ছাত্রী হোস্টেলে বহিরাগতদের অনুপ্রবেশের প্রতিবাদে রাতভর বিক্ষোভ মিছিল করেছে নগরীর ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজী (আইএইচটি) এর শিক্ষার্থীরা। এসময় মেডিকেল কলেজের সাবেক ভিপি এবং বিএমএ বরিশাল জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক ডাঃ এসএম সায়েম এর অনুসারি ল্যাব তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী মোস্তা নাহার সুমির বিচার দাবীতে শ্লোগান দেয়।
এদিকে রাতে বহিরাগতদের ছাত্রী হোস্টেলের প্রবেশের চেষ্টায় ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। আইএইচটি ক্যাম্পাস ছাত্রলীগ নেতা লিটন বিশ্বাস জানায়, সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের অনুপ্রবেশ এবং শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে ক্লাশ বর্জন, বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন, অধ্যক্ষের নিকট লিখিত অভিযোগ দেয় শিক্ষার্থীরা। এ বিষয়ে ডাঃ সায়েম এর ঘনিষ্ট সহচর এবং আলোচিত ছাত্রলীগ নামধারী নেত্রী সুমি বিষয়টি সায়েমকে জানায়। লিটন আরো জানায়, রাতে সায়েম এর সহযোগিতায় সুমি সরকারী সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ থেকে ছাত্রলীগের ১৫/২০ নেতা-কর্মী এনে আইএইচটি ক্যাম্পাসে ছাত্রী হোস্টেলে প্রবেশের চেষ্টা করে। এ সময় গেটের দারোয়ান তাদের বাধা দিলে গেট ভাংচুরের চেষ্টা করে সুমির হাতেম আলী কলেজ বাহীনি। এতে শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে।
এদিকে খবর পেয়ে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ ক্যাম্পাসে পৌছালে বহিরাগতরা পালিয়ে যায়। তবে ঘটনার পর পরই আইএইচটির শতাশিক ছাত্রী হোস্টেল থেকে একাডেমিক ভবনের সামনে এসে বিক্ষোভ মিছিল করে। এসময় ডাঃ সায়েম এবং তার ঘনিষ্ট সহচর সুমির বিচার দাবী করেন। রাত ১টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ক্যাম্পাসে ছাত্রীদের বিক্ষোভ চলছিলো।