ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতির ভবিষ্যত-বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর

সিদ্দিকুর রহমান ॥ বাংলাদেশ ব্যাংকের গর্ভনর ফজলে কবির বলেছেন, ‘দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের (এসএমই) সুদিন আসন্ন। তাই এই খাতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আমাদের কাজ হলো এসএমই খাতকে এগিয়ে নেওয়া। কারন ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পই বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতির ভবিষ্যত।
গতকাল বুধবার বিকেলে নগরীর বরিশাল ক্লাবের অমৃত লাল দে মিলনায়তনে ব্যাংকার – এসএমই উদ্যোক্তা মতবিনিমিয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
বাংলাদেশ ব্যাংকের এসএমই এন্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস বিভাগের আয়োজনে এবং বরিশাল অঞ্চলের সকল বাণিজ্যিক ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত সভায় ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই) খাতে দক্ষ উদ্যোক্তাদের জামানত বিহীন ঋণ দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন গভর্ণর। তিনি আরো বলেন, এসএমই খাত আগামীতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এই খাতের বিকাশে আরো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। গর্ভনর বলেন, এসএমই খাতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়ার পাশাপাশি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মূল ভূমিকা হলো অর্থনীতির প্রবৃদ্ধির হার সমর্থন করা ও জিডিপি হার বাড়ানো এবং এসএসই খাতে উন্নয়ন নিশ্চিত করা। দারিদ্রমুক্ত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার জন্য সপ্তম বার্ষিকী পরিকল্পনার আলোকে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বর্তমান সরকার। সরকারের রুপকল্প ২০২১ বাস্তবায়নে নারীর ক্ষমতায়ন ও এসডিজি লক্ষমাত্রা অর্জনের জন্য ব্যাংকগুলোকে অগ্রণী ভুমিকা পালন করতে হবে। তিনি বলেন, ব্যাংকের শতকরা ৩৫ ভ্গা এসএমই খাতে, ৪০ ভাগ শিল্প খাতে এবং ২৫ ভাগ সেবাখাতে ঋন বিতরন করতে হবে। তাছাড়া চলতি বছরের জানুয়ারী থেকে জুন পর্যন্ত সর্বমোট ঋন প্রদান করা হয়েছে ৬০ লক্ষ ৮০ হাজার কোটি টাকা। যার মধ্যে বরিশাল বিভাগে ১ হাজার ৪৮৮ কোটি টাকা ঋন প্রদান করা হয়েছে। যা মোট শতকরা ১.৭৮ ভাগ। তাই বরিশাল অঞ্চলে উদ্যোক্তাদের মাঝে ঋন সরবরাহের হার বৃদ্ধি করতে হবে। এছাড়াও নতুন উদ্যোক্তাদের মাঝে ঋন প্রদানের মধ্যে দিয়ে এই দেশের অর্থনীতিতে প্রবৃদ্ধির হার বৃদ্ধি করতে হবে। এসময় তিনি আরো বলেন, এসএমই খাতে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ১০ ভাগ ঋন সংরক্ষিত রাখতে হবে। পরবর্তীতে শতকরা ১৫ ভাগে উন্নতি করা হবে। এছাড়াও প্রতিবছর দেশের প্রত্যেকটি ব্যাংকের প্রত্যেকটি শাখায় ৩ জন নারী উদ্যোক্তাদের যথাক্রমেই বৃদ্ধি করা প্রয়োজন।
বাংলাদেশ ব্যাংকের বরিশালের মহাব্যবস্থাপক মো. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিতেত্ব অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংকের এসএমই এন্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস ডিপার্টমেন্ট’র মহাব্যবস্থাপক শেখ মো. সেলিম। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মো. সোহরাওয়ার্দী, অগ্রনী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহম্মদ শামস-উল ইসলাম, জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান, প্রাইম ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ কামাল খান চৌধুরি, এবি ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মসিউর রহমান চৌধুরি, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ’র উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে ৩৪ জন পুরুষ এসএমই উদ্যোক্তাদের মধ্যে ৩৫ কোটি ৭১ লক্ষ টাকা এবং ১০ জন নারী এসএমই উদ্যোক্তাদের মাঝে ২ কোটি ৩০ লক্ষ টাকার ঋনের চেক বিতরন করা হয়।