কীর্তনখোলা ও সন্ধ্যা নদী থেকে অজ্ঞাত দুই লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ কীর্তনখোলা ও সন্ধ্যা নদী থেকে অজ্ঞাত দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার কীর্তনখোলা নদীর শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সেতুর নীচ থেকে উদ্ধার করা অজ্ঞাত লাশের বয়স আনুমানিক ২২ বছর হবে বলে কোতয়ালী মডেল থানার এএসআই নুরে আলম জানিয়েছেন। তিনি জানান, লাশ উদ্ধারের পর ময়না তদন্তের জন্য শেবাচিমের মর্গে পাঠানো হয়েছে। উদ্ধার হওয়া লাশের পড়নে সাদা গেঞ্জি ও নীল রংয়ের জিন্স প্যান্ট ছিলো। তবে শরীরের কোথাও কাটা চেড়া বা জখম পাওয়া যায়নি। এই ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।
কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি শাখায়াত হোসেন জানান, স্থানীয়রা সেতুর নীচে লাশ ভাসতে দেখে পুলিশকে সংবাদ দেয়। তারা গিয়ে লাশ উদ্ধার করেছে।
নাম পরিচয় কিংবা স্বজনদের না পাওয়া গেলে বেওয়ারিশ হিসেবে লাশটি আঞ্জুমান-ই-হেমায়েত উদ্দিন’র মাধ্যমে দাফন দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ওসি।
অপরদিকে গত ১৭ জুলাই উজিরপুর উপজেলার সন্ধ্যা নদীর হাবিবপুর এলাকা থেকে অজ্ঞাতনামা যুবকের (২৫) হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। থানার ওসি মো. নুরুল ইসলাম জানান, স্থানীয়রা নদীতে লাশ ভাসতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়।
পুলিশ জানিয়েছেন, নিহতের বুকের ডান পাশের স্তনের নীচে কাটা জখম এবং ডান ও বাম বোগলের নীচে কাটা জখম রয়েছে। কালো প্যান্ট ও কালো শার্ট পরিহিত এবং হাত-পা দড়ি দিয়া বাধা অবস্থায় উদ্ধার করা লাশের পরিচয় পাওয়া যায়নি। তাই হেমায়েত উদ্দিন মুসলিম গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে হত্যা মামলা করেছে।