কাশিপুরে শিবিরের ঘাটিতে অভিযান ॥ রশিদ, বই ও মালামালসহ আটক ২

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নগরীর কাশিপুরে শিবিরের ঘাটিতে ঘন্টাব্যাপি তল্লাশী অভিযান চালিয়ে চাঁদা তোলার রশিদ ও বইসহ বেশকিছু মালামাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার মহানগরীর দুই থানাসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ওই অভিযান চালানো হয়। অভিযানে ভবন মালিকের স্ত্রী ও এক কলেজ ছাত্রকে আটক করা হয়েছে। তারা হলো- ফিসারী রোডে শরীফ ম্যানসন-১ ও শরীফ ম্যানসন-২ ভবনের মালিকের স্ত্রী নাসিমা শরীফ ও বেসরকারি ইনফ্রা পলিটেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট’র ছাত্র আল মামুন।
বিষয়টি নিশ্চিত করে বিমানবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারেন ফিশারী রোডের শরিফ ম্যানশন-১ ও শরিফ ম্যানশন-২ নামক দুটি বাড়িতে নাশকতার পরিকল্পনা হচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বেলা ১২টার দিকে ওই বাড়ি দুটির চার দিকে থেকে ঘিরে ফেলেন তারা। পরবর্তীতে দুটি বাড়িতে তল্লাশী অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় শরিফ ম্যানশন-১ এর দ্বিতীয় তলার ফ্ল্যাট থেকে কিছু সংখ্যক জিহাদী বই, শিবিরের মাসিক চাঁদা আদায়ের রশিদ এবং একটি ল্যাপট উদ্ধার করা হয়েছে। ল্যাপটপের মধ্যে জামায়াত-শিবিরের কার্যক্রমের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন তথ্য পাওয়া গেছে।
ওসি জানান, তল্লাশি কালে ফ্ল্যাটটিতে শুধুমাত্র ছাত্র মামুনকে পাওয়া গেছে। যে কারনে তাকে আটক করা হয়েছে। এছাড়াও বাড়ির মালিকের স্ত্রী নাসিমা শরীফকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।
কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, সকালে রূপাতলী এলাকায় নাশকতার পরিকল্পনা কালে তিনজনকে আটক করে কোতয়ালী পুলিশ। তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী ওই বাড়িতে তল্লাশী অভিযান পরিচালিত হয়। সকালে যারা আটক হয়েছেন তারাও ওই বাড়ির মেস বাড়িতে বসবাস করতেন বলে সূত্রটি নিশ্চিত করেছেন।
এদিকে স্থানীয় একাধীক সূত্র জানায়, শরিফ ম্যানশন’র দুই ভবন মেস হিসেবে ভাড়া নিয়ে শিবিরের নেতা-কর্মীরা দীর্ঘ দিন ধরে বসবাস করছে। সেখানে বেশিরভাগ ছাত্র’র বেসরকারি ইনফ্রা পলিটেকনিক্যাল কলেজের ছাত্র। এর বাইরে বিএম কলেজ, হাতেম আলী কলেজ, সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট সহ অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্ররাও মেসে ভাড়া হিসেবে বসবাস করে। যারা সবাই শিবিরের সাথে সম্পৃক্ত। বিমানবন্দর থানার ওসি জানিয়েছেন, আটকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ওই ভবনে ছাত্র শিবিরের যেসব নেতা-কর্মী বসবাস করতো তাদেরকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তাছাড়া এই ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন তিনি।