কলেজ রোডে মেসের ছাত্রীকে মেরেছে মালিক

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে নগরীর নিউ কলেজ রোড বৈদ্যপাড়া এলাকায় ভাড়াটিয়া ছাত্রী ও বাসা মালিকদের সাথে তুলকলাম কান্ড ঘটেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার এই ঘটনায় ৩ ছাত্রী আহত হয়েছে। তাদের একজনের নাম সাথী। সে বিএম কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্রী। এই ঘটনায় ছাত্রীরা ভবন মারিক পলিটেকনিক কলেজের সাবেক শিক্ষক মজিবর রহমানকে ঘেরাও করে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। ছাত্রীরা জানিয়েছে, শিক্ষকের নুরজাহান মঞ্জিলে কলেজ পড়–য়া ছাত্রীদের মেস হিসেবে ভাড়া দেয়া হয়েছে। আহত ছাত্রী সাথীর রুমমেট আয়শার আত্মীয় ছেলে সন্ধ্যায় মালিক মজিবর রহমানের কাছে একটি বই দিতে আসে। তখন মজিবর রহমান তাকে অকথ্য ভাষায় গালি দেয়া সহ লাঞ্ছিত করে। এই খবর আয়শাকে জানালে সে ও সাথী প্রতিবাদ করে। তখন তাদেরকে ও গালি দেয় মজিবর রহমান। এতে ক্ষিপ্ত ছাত্রীরা মেস ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। এই জন্য সাথী বিকাশে টাকা আনার জন্য বের হতে চায়। তখন তাকে বাধা দেয় মজিবর। এক পর্যায়ে সে সাথীকে মারধর করে। এই খবর মেসের অন্যান্য ছাত্রীদের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে মজিবরকে ঘেরাও করে। কোতয়ালী মডেল থানার ওসি শাখাওয়াত হোসেন বলেন, উভয় পক্ষ নিয়ে বসা হয়েছে। এই খবর লেখা পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। ছাত্রীরা অভিযোগ করেছে মজিবর রহমান দুশ্চরিত্র, নানা অজুহাতে ছাত্রীদের যৌন হয়রানির চেষ্টা করেছে। এমনকি তাদের বাসা ছাড়তে দেয় না।